ঈশ্বরদীতে গুলিবিদ্ধ ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

প্রকাশিত

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সদরুল আলম পিন্টুকে (২৮) কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা।

সোমবার (২ এপ্রিল) সকালে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পিন্টুর মৃত্যু হয়।

এর আগে রবিবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় তাকে গুলি করে এলোপাথারি কোপায় প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা।

নিহতের দাদা জামাল হোসেন পিন্টুর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নিহত পিন্টু উপজেলার চর রূপপুর গ্রামের আব্দুল আজাদের ছেলে।

পারিবারিক সূত্র ও পুলিশ জানায়, রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার পাকশী রূপপুর মোড়ে পিন্টুকে প্রথমে গুলি করে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা। পরে এলোপাথারি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকাল ৬টার দিকে মারা যান পিন্টু।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিম উদ্দিন বলেন, ‘আমি শুনেছি গুলিবিদ্ধ সদরুল আলম পিন্টু মারা গেছে। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’