উল্লাপাড়ায় ৭ম শ্রেনীর ছাত্রীকে গনধর্ষনের চেষ্টা।

প্রকাশিত

উল্লাপাড়া(সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ উল্লাপাড়ার পঞ্চকোশী ইউনিয়নে ৭ম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে বাড়ির পাশ থেকে তুলে নিয়ে পাশের ফাঁকা ভিটায় গণধর্ষণের চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ হাফিজ জানান,ওই ছাত্রটির মা ১১আগস্ট থানায় দেওয়া এজাহারে অভিযোগ উল্লাপাড়ায় ৭ম শ্রেনীর ছাত্রীকে গনধর্ষনের চেষ্টা।

উল্লাপাড়া(সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ উল্লাপাড়ার পঞ্চকোশী ইউনিয়নে ৭ম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে বাড়ির পাশ থেকে তুলে নিয়ে পাশের ফাঁকা ভিটায় গণধর্ষণের চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ হাফিজ জানান,ওই ছাত্রটির মা ১১আগস্ট থানায় দেওয়া এজাহারে অভিযোগ করেছেন, উপজেলার রাঘববাড়িয়া গ্রামের ইব্রাহীম হোসেনের ছেলে মাসুদ রানা(১৯) এবং শীতল শেখের ছেলে তারেকুল ইসলাম(২০) বেশকিছুদিন ধরে তার মেয়েকে বাড়ির পাশের রাস্তায় যাতায়াতে উত্যক্ত করতো ।

গত ১০আগস্ট মেয়েটি গভীর রাতে প্রকৃতির ডাকে সারা দিতে ঘরের বাইরে গেলে পরিকল্পিতভাবে মাসুদ রানা তারেকুল ও তাদের আরো কয়েকজন সহযোগী মেয়েটির মুখে কাপড় গুজে দিয়ে তাকে পাজা করে নিয়ে পাশের ভিটায় জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে। মেয়েটির চিৎকারে পার্শ^বর্তী লোকজন ঘটনাস্থলে এগিয়ে এলে ধর্ষণের চেষ্টাকারীরা পালিয়ে যায়। ধর্ষণ চেষ্টার সময় মেয়েটিকে পাশের খালের পানিতে চুবানো হয়।

পরে অচেতন অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে তার বাড়িতে পৌছে দেয় প্রতিবেশীরা। এ ব্যাপারে পুলিশ ইতোমধ্যেই তদন্ত শুর“ করেছে। অভিযুক্তরা পালিয়ে বেড়াচ্ছে।