একা ছিল হামলাকারী!

প্রকাশিত

সিলেট প্রতিনিধি: শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে জনপ্রিয় লেখক অধ্যাপক ড. জাফর ইকবালের ওপর হামলাকারী একাই হামলা করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে হামলার মূল উদ্দেশ্য এখনো স্পষ্ট নয়।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহাব শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ‘হামলাকারী একা ছিল। তাকে শিক্ষার্থীরা আটক করেছে। তাকে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে উদ্ধার করে পুলিশের জিম্মায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’ তবে ওই হামলাকারীর পরিচয় জানাতে পারেননি তিনি।

এদিকে, ২৪-২৫ বছর বয়সী ওই যুবক মুক্তমঞ্চের পেছন দিক থেকে এসে অতর্কিতে ড. জাফর ইকবালের মাথায় ছুরিকাঘাত করে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রিপল-ই বিভাগের একটি অনুষ্ঠানে জাফর ইকবালকে ওই যুবক ছুরিকাঘাত করে।

উপস্থিত শিক্ষার্থীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে ট্রিপল-ই বিভাগের একটি অনুষ্ঠান চলছিল। অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আসেন। তখনই ভিড়ের মধ্যে যুবকটি তাকে ছুরিকাঘাত করে।

ঘটনার পর আহত অবস্থায় জাফর ইকবালকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

হাসপাতালে আনার পথে এবং হাসপাতালে আনার পরেও ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল স্বাভাবিক কথাবার্তা বলছিলেন বলে জানিয়েছেন জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাসুম। মুহম্মদ জাফর ইকবাল শঙ্কামুক্ত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। অপারেশনের জন্য জাফর ইকবালকে দ্রুত অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়।

এদিকে, মাথায় আঘাত পাবার কারণে তার মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়েছে। এ কারণে তার জন্য দুই ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে শাবিপ্রবির প্রক্টর জহির উদ্দীনের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

ক্যাম্পাস এলাকায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মুহাম্মদ আবদুল ওহাব। হাসপাতাল এলাকায়ও নিরাপত্তা জোড়দার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।