এমসিসি’র সভায় যাচ্ছেন সাকিব

প্রকাশিত

এমসিসি ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির সভায় দারুণ প্রস্তুতি নিয়েই রোববার যাচ্ছেন সাকিব আল হাসান। সেখানে গিয়ে দর্শক হয়ে বসে থাকতে চান না বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। রাখতে চান সক্রিয় ভূমিকা।

এর আগে গত অক্টোবেরে বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে সাকিব জায়গা পেয়েছিলেন সম্মানজনক আইসিসি ক্রিকেট কমিটিতে। তিনি সম্মানিত করেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটকেও। তবে এখানেই থেমে থাকতে চান না এ বাঁহাতি। ঐ কমিটির সভায় দেশের ক্রিকেটকে আরও ভালোভাবে তুলে ধরবেন। জানাবেন নিজের মত।

বৃহস্পতিবার এ নিয়ে সাকিব বলেন, আমি সিডনিতে গিয়ে দর্শক হয়ে বসে থাকতে চাই না। অবদান রাখতে চাই। যে কয় বছর কমিটিতে থাকব, পুরোটাতেই সক্রিয় থাকতে চাই। সেভাবেই ভাবছি, প্রস্তুতি নিচ্ছি। পার্থক্য গড়ার মত কিছু বলতে বা করতে না পারলে তো সভায় গিয়ে লাভ নেই।

গত ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে বর্তমান ক্রিকেট কমিটির দায়িত্ব। তবে কমিটির প্রথম সভা আগামী ৯ ও ১০ জানুয়ারি হবে সিডনিতে। সে সভায় অংশ নিতে ৭ জানুয়ারি ঢাকা ছাড়ার কথা সাকিবের। এরইমধ্যে এমসিসি ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির সভার এজেন্ডাগুলো হাতে পেয়েছেন সাকিব। সেগুলো নিয়ে বেশ পড়াশুনা করছেন তিনি। আবার মতামত ঠিক করছেন। ‘সভার এজেন্ডাগুলো ওরা পাঠিয়ে দিয়েছে। অনেক কাগজপত্র। সেগুলো দেখছি।

নিজের মতামত যা থাকবে, সেসব নিয়ে ভাবছি। প্লেনে ওঠার পর ফাইনাল টাচ দেব। লম্বা ফ্লাইটে শেষের সবটুকু গুছিয়ে নেব।’ এমসিসি ক্রিকেট কমিটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ২০০৬ সালে।

এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটি:- মাইক গ্যাটিং (চেয়ারম্যান), ভিঞ্চ ভন ডার ভিজল, ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, ইয়ান বিশপ, রমিজ রাজা, জন স্টিফেনসন, কুমার সাঙ্গাকারা, কুমার ধর্মাসেনা, সৌরভ গাঙ্গুলি, রড মার্শ, রিকি পন্টিং, সুইজ বেটস, টিম মে এবং সাকিব আল হাসান