এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে উপ-নির্বাচন না করতে ইসিকে অনুরোধ জিএম কাদেরের

প্রকাশিত

আগামী ১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে যশোর ও বগুড়ায় উপ-নির্বাচন না করতে প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে চিঠি দিয়ে অনুরোধ করেছেন দলের চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি (জিএম কাদের)।

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুরে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়া, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা সরদার শাহজাহান, জাতীয় পার্টির সাহিত্য সম্পাদক সুমন আশরাফ এবং যুগ্ম দফতর সম্পাদক মাহমুদ আলম দলের চেয়ারম্যানের চিঠিটি নির্বাচন কমিশনে পৌঁছে দিয়েছেন।

জাপার চেয়ারম্যানের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী বৃহস্পতিবার বিকাল তিনটার দিকে বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানান।

চিঠিতে জিএম কাদের বলেন, ‘গেলো বছর ১৪ জুলাই হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বর্তমান সংসদের বিরোধী দলীয় নেতার দায়িত্ব পালনকালে ইন্তেকাল করেন। জাতীয় পার্টি ১৪ জুলাই দিনটি দলগতভাবে শোক দিবস হিসেবে পালন করবে। দেশবাসী এই দিনে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবেন পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে। ১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির অগণিত নেতা-কর্মী-সমর্থক-শুভানুধ্যায়ীদের কাছে অত্যন্ত শোকাবহ অনুভূতির দিন।’

চিঠিতে জাতীয় পার্টি চেয়াম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, ‘অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, পল্লীবন্ধু এরশাদের প্রথম মৃত্যুর তারিখে যশোর ও বগুড়ার দুটি সংসদীয় আসনে উপ-নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এটা হয়তো অসতর্কতার কারণেও হতে পারে। তাই ১৪ জুলাইয়ের আগে-পরে যেকোনও দিনে উপ-নির্বাচনের তারিখ পুনর্নির্ধারণ করে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করবেন।’

চিঠিতে তিনি আরও বলেন, ‘জাতীয় পার্টি গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে সবসময় ভূমিকা রেখে আসছে। আমরা প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও সবসময় নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করে আসছি। ঘোষিত নির্বাচনেও জাতীয় পার্টির অংশ গ্রহণ আছে।’