কক্সবাজারে ঘরের ভেতর স্বামী-স্ত্রী ও দুই মেয়ের লাশ

প্রকাশিত

কক্সবাজার প্রতিনিধি:
স্ত্রী ও দুই সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্বামী।

কক্সবাজার শহরের গোলদীঘির পাড় শিয়াইল্লাপাহাড় এলাকায় আজ বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- স্বামী সুমন চৌধুরী (৪০), স্ত্রী বেবি চৌধুরী (২৮) এবং তাদের স্কুল পড়ুয়া দুই মেয়ে অবন্তিকা চৌধুরী ও জ্যোতি চৌধুরী।

সুমন চৌধুরী গোলদীঘিরপাড় এলাকার মৃত ননী গোপাল চৌধুরীর ছেলে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি রনজিত কুমার বড়ুয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, প্রথমে দুই সন্তান ও স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। পরে স্বামী সুমন চৌধুরী আত্মহত্যা করেন। ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় সুমন চৌধুরীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বিছানায় শায়িত অবস্থায় দুই সন্তানের সাথে তাদের মা বেবি চৌধুরীর লাশ পাওয়া যায়। নিহতদের লাশ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত সুমন চৌধুরীর বন্ধু রং মিস্ত্রী দিলীপ বলেন, বিকেল ৫টার দিকে সুমনকে অনেকবার ফোন করে না পাওয়ায় বাসায় গিয়ে দেখি দরজা জানালা সব বন্ধ। পরে জানালা দিয়ে দেখি, ঘরের ভেতর সবার লাশ। ফ্যানের সাথে ঝুলছে বন্ধু সুমনের লাশ। পরে তিনি এলাকাবাসীকে খবর দিলে সবাই ছুটে আসেন।

সুমন চৌধুরী কসমেটিকসের ব্যবসা করতেন। অনেক দেনার কারণে তিনি দোকান বন্ধ করে দিয়েছেন। এ নিয়ে প্রায়ই স্ত্রীর সাথে ঝগড়া হতো। ওই টেনশন থেকে তিনি ঘটনাটি ঘটাতে পারেন বলে ধারণা করছেন এলাকাবাসী।

মর্মান্তিক ঘটনাটির খবর পেয়ে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, পৌরসভার মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) মাহবুবুর রহমানসহ স্থানীয়রা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।