কালবৈশাখী ঝড়,ফুলবাড়ীতে কাঁচা-ঘরবাড়ী ভুট্টাক্ষেত ও আম-লিচুর ব্যাপক ক্ষতি 

প্রকাশিত

মোঃ আবু শহীদ,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি-
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে হঠাৎ টর্নেডোর (কালবৈশাখী ঝড়) আঘাতে লন্ডভন্ড হয়ে পড়েছে কাঁচা ঘরবাড়ী, ভেঙ্গে পড়েছে গাছের ডাল ও বিদ্যুতের খুটি। ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে আম-লিচু,ভুট্টাসহ ধান ক্ষেতের। ঝড়ের আঘাতে কাঁচা ঘরবাড়ী ভেঙ্গে পড়ায় ঈদের আনন্দ বিষাদে রুপ নিয়েছে ক্ষতি গ্রস্থ ৫শ পরিবারের।
গত রবিবার রাত সাড়ে ৯টায় (ঈদের দিন রাতে) আকর্ষিক এই কালবৈশাখী ঝড় আঘাত হানলে,ফুলবাড়ীসহ আশপাশের প্রায় কয়েক’শ পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হয়।
এদিকে সোমবার সকালে (ঈদের দিন) দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম ঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি পরিদর্শন করে ৩শ পরিবারকে তৎক্ষনাৎ ত্রান দিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরী।
ক্ষতিগ্রস্থরা জানায়,রবিবার রাতে যখন তারা ঈদ উৎযাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছে,এই সময় হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড় শুরু হয়। ঝড়ে তাদের ঘরের টিনের চালা উড়ে নিয়ে যায় এবং কাঁচা ঘরবাড়ী ধ্বসে যায়। বৃষ্টির পানিতে ভিজে যায় তাদের ঈদের সামগ্রীসহ বাড়ির সমস্ত জিনিসপত্র। এছাড়া ঝড়ের আঘাতে গাছের ডালপালা ভেঙ্গে পড়ে গাছের আম ও লিচুর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ের আঘাতে ভুট্টার গাছ ভেঙ্গে পড়ে ভুট্টা ক্ষেত ও পাকা ধানেরও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে জানায় চাষিরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গাছের ডাল ভেঙ্গে পড়ায় অনেক বন্য পাখির মৃতদেহ রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। শিবনগর গ্রামের ষাটউর্দ্ধ বয়সী মফিজ উদ্দিন বলেন ঝড়ে তার দুটি ঘরের চালা একেবারে উড়ে গেছে। তিনি বলেন এই রকম ঝড় তিনি এর পুর্বে কখনো দেখেননি। শিবনগর ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম মজনু বলেন, গ্রামের মানুষ যখন ঈদের বাজার করে ঘরে ফিরছে ঠিক সেই সময় হঠাৎ ঝড় শুরু হয়। ঝড়ে যাদের ঘরের চালা উড়ে গিয়ে ঘরবাড়ী ধ্বসে গেছে, তারা খোলা আকাশের নিচে বৃষ্টিতে ভিজে রাত কাটিয়েছে।
নেসকোর আবাসিক প্রকৌশলী উজ্জল আলী বলেন ঝড়ের আঘাতে বিদ্যুতের ৩৩ কেভি লাইনের খুটি ভেঙ্গে পড়ে তার ছিড়ে যায়। এতে করে ফুলবাড়ী উপজেলায় প্রায় ২০ ঘন্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকে।
উপজেলার আমচাষি প্রভাষক হামিদুল হক বলেন, ঝড়ে তাঁর বাগানের প্রায় ১০০টি আমগাছ ভেঙ্গে পড়েছে এতে করে তার প্রায় ২০টন আম ঝড়ে পড়ে গেছে। একই কথা বলেন শিবনগর গ্রামের আমচাষি খন্দকার সাজু মিয়া,তিনি বলেন ঝড়ে তার প্রায় ৫০টি আম গাছের ডাল ভেঙ্গে পড়েছে এবং প্রায় ১০টন আমের ক্ষতি হয়েছে ।
ভুট্টা চাষি পুর্ব রাজারামপুর গ্রামের রিয়াজুল ইসলাম বলেন ঝড়ে তার প্রায় তিন বিঘা জমির ভুট্টা পড়ে গেছে। তিনি বলেন তারমত ওই গ্রামের অনেকের ভুট্টা পড়ে গেছে। এছাড়া রাজারামপুর, জাফরপুর, দুধিপুকুর এলাকায় ভুট্টা ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
এই বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এটিএম হামিম আশরাফ বলেন,আকর্ষিক ঝড়ের কবলে পড়ে আম,লিচু,ভুট্রা কলাসহ পাকা ধান ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
শিবনগর ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন,ঝড়ে শিবনগর ইউনিয়নের জাফরপুর ,রাজারামপুর,দেবীপুর,পাঠকপাড়া,লক্ষণপুর,দুধিপুকুর,রামভদ্রপুরসহ ৫টি ওয়ার্ডের ১০টি গ্রামে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এতে প্রায় ৫০০শ পরিবারের ঈদের আনন্দ বিষাদে পরিণত হয়েছে।