কাহালুতে  সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদার দাবী ২ জনকে আটক করে গনধোলাই

প্রকাশিত

আকাশ সরকার রাসেল বগুড়াঃ
গত মঙ্গলবার রাতে বগুড়ার কাহালু উপজেলার মালঞ্চা ইউনিয়নের ইন্দুখুর বাজারে এম মেডিসিন কর্ণার নামে একটি ফার্মাসীতে সাংবাদিক পরিচয়ে দাবীকৃত ৫০ হাজার টাকা চাঁদা নিতে গিয়ে কথিত ভূয়া সাংবাদিক জাহিদ হাসান (২৮) ও তার সহযোগী কুতুব শাহাব উদ্দিন বাবু (৪০)কে আটক করে গন ধোলাই দিয়েছে বাজারের জনসাধারণ।

ইন্দুখুর বাজারের এম মেডিসিন কর্ণারের প্রোপ্রাইটর পল্লী চিকিৎসক মো.শহিদুল ইসলাম (শহিদ) ও বাজারের লোকজন জানান, গত রোববার সকাল ১০ টার দিকে কথিত ভূয়া সাংবাদিক কাহালু পৌর এলাকার জয়সারা গ্রামের আব্দুল হাকিম বাবলুর পুত্র জাহিদ হাসান নিজেকে সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিয়ে এম মেডিসিন কর্ণার ঔষধের দোকানে গিয়ে ছবি তোলেন। এ সময় দোকানের কর্মচারী জয়নাল আবেদীনকে ভয়ভীতি দেখিয়ে বলেন এই দোকানে অবৈধ ঔষধ বিক্রি করা হচ্ছে। তারপর দোকানে ঢুকে ব্যাপক তল্লাশি চালায় এবং দোকানের মালিক শহিদুল ইসলাম শহিদ এর মোবাইল ফোন নম্বর নিয়ে চলে আসেন।

তারপর থেকে ভূয়া সাংবাদিক মোবাইল ফোনে দোকানদার পল্লী চিকিৎসক শহিদুল ইসলাম (শহিদ)কে দেখা করতে বলেন এবং ৫০ হাজার টাকা চাঁদার দাবী করেন। গত মঙ্গলবার রাত ৮ টার দিকে ভূয়া সাংবাদিক জাহিদ হাসান ও তার সহযোগী কুতুব শাহাব উদ্দিন বাবু ইন্দুখুর বাজারে এম মেডিসিন কর্ণার ঔষধের দোকানে দাবীকৃত ৫০ হাজার টাকা চাঁদা নিতে গেলে দোকানদার শহিদুল ইসলাম (শহিদ) ও বাজারের লোকজন তাদেরকে আটক করে গন ধোলাই দেন।

খবর পেয়ে কাহালু থানার এস আই আশিকুর রহমান (আশিক) সঙ্গীয় ফোর্স সহ বাজারে গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করেন। ইন্দুখুর বাজারের এম মেডিসিন কর্ণারের প্রোপ্রাইটর পল্লী চিকিৎসক শহিদুল ইসলাম (শহিদ) জানান, এ ব্যাপারে তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।