কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে র‍্যাব-১১ বিশেষ অভিযানে ৭ হাজার ৩৫০ পিছ ইয়াবাসহ আটক-৩

প্রকাশিত
কুমিল্লা প্রতিনিধি এ.কে পলাশ :
কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে বাবুর্চিবাজার এলাকায় র‍্যাব-১১ সিপিসি-২ এর একটি অভিযানিক দল বিশেষ অভিযান চালিয়ে ১টি ট্রাকের ড্যাশবোর্ডের অভ্যন্তরে লুকিয়ে পাচারকালে  বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা ৭ হাজার ৩৫০ পিছ ইয়াবাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ট্রাকটিও জব্দ করা হয়।
বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সকালে উপজেলার বাবুর্চিবাজার অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।
আটককৃত আসামিরা হলেন, মোঃ শাহীন ইমরান (১৯) পাবনা জেলার বেড়া উপজেলার বনগ্রাম কুমিল্লার লালমাই উপজেলার দক্ষিণ জয়কামতা (দারোগা বাড়ি) এলাকার মৃত. আবুল কালামের ছেলে, মোঃ আরমান হোসেন জয় (২২) পাবনা জেলার বেড়া উপজেলার বনগ্রাম দক্ষিণ এলাকার আয়নাল প্রামাণিকের ছেলে ও মোঃ সবুর আলী সবুজ (২৩) পাবনা জেলার সাথিয়া উপজেলার সোনাতলা (মিস্ত্রীপাড়া) এলাকার মৃত মাহমুদ আলীর ছেলে।
র‌্যাব সুত্রে জানা যায় , কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম বাবুর্চি বাজার এলাকায় কুমিল্লা র‌্যাব-১১ সিপিসি-২ এর একটি আভিযানিক দল জেলার চৌদ্দগ্রাম থানাধীন বাবুর্চি বাজার এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানকালে ট্রাকের ড্যাশবোর্ডের অভ্যন্তরে লুকিয়ে পাচারকালে তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। এসময়ে তাদের নিকট থেকে মোট ৭ হাজার ৩৫০ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এক্ষেত্রে মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ট্রাকটিও জব্দ করা হয়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-১১ ও সিপিসি-২ এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার প্রাথমিক অনুসন্ধান ও জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন যাবৎ পরস্পর যোগসাজশে কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদকদ্রব্যয় ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল বলে স্বীকার করে।
আটককৃত আসামিদের বিরুদ্ধে আসামীদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের শেষে তাদেরকে বৃহস্পতিবার দুপুরে থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান।