কুমিল্লা সিটি কাউন্সিলর আলমগীরকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার

প্রকাশিত

কুমিল্লা প্রতিনিধি-কুমিল্লা সিটি কাউন্সিলর আলমগীর হোসেনকে ব্যবসায়ী আক্তার হত্যায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে কুমিল্লা মহানগর যুবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তাকে বহিষ্কার করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ একটি সুসংগঠিত ও সুশৃঙ্খল সংগঠন। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের নির্দেশে কুমিল্লা মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আলমগীর হোসেনকে সংগঠন বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে বহিষ্কার করা হল।

নিহত আক্তারের ছোট ভাই মো. শাহজালাল আলাল বলেন, তাকে দল থেকে শুক্রবার বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে সাধারণ মানুষ ও আমাদের দাবি হল, তাকে কাউন্সিলর পদ থেকেও বহিষ্কার করা হোক অথবা পদ স্থগিত রাখা হোক। কেননা, হত্যা মামলার আসামি যদি স্বপদে বহাল থাকে, তাহলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে নানা কিছু চিন্তা করবে। আমরা জেনেছি, তিনি কুমিল্লা নগরীতে আত্মগোপনে ছিলেন। পরবর্তী সময়ে যেকোনও নেতার সহযোগিতা নিয়ে হয়তো ঢাকা চলে গেছেন। আমরা চাই, কাউন্সিলরসহ সকল আসামিকে গ্রেফতার করে দ্রুত বিচারের আওতায় আনা হোক।
প্রসঙ্গত, গত ১০ জুলাই জুমার নামাজের পর কুমিল্লা নগরীর চাঙ্গনী এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী আকতার হোসেনকে মসজিদ থেকে বের করে, শতশত মানুষের সামনে প্রকাশ্যে রড দিয়ে পিটিয়ে ও দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ রয়েছে। এ ঘটনায় কাউন্সিলরকে প্রধান আসামি করে, তার পাঁচ ভাইসহ মোট ১০ জনের নামে মামলা করেছে নিহতের স্ত্রী রেখা বেগম। তাদের মধ্যে তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।