কুড়িগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পে নানা অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি-

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ উঠে, এ প্রকল্পের তালিকায় অস্বচ্ছল ব্যক্তিদের পরিবর্তে দেয়া হচ্ছে স্বচ্ছল ব্যক্তিদের নাম। এ ছাড়া ঘর নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ও সুবিধাভোগিদের কাছ থেকে পরিবহন খরচ নেয়ার অভিযোগ উঠে উপজেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধে।

সুবিধাভোগিদের অভিযোগ ঘর নির্মাণে মানা হয়নি সরকারের বেঁধে দেওয়া নিয়ম। নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে প্রতিটি ঘর। রডের পরিমাণেও রয়েছে গড়মিল। খুঁটিতে দেয়া হয়েছে ১ সুতি রড। ঘর ও টয়লেট নির্মাণে ২১টি খুটির পরিবর্তে দেয়া হয়েছে ১৯টি খুটি। প্রথম শ্রেণির ইট দিয়ে ভিটি দেয়াল ৮ ইঞ্চি করার কথা থাকলেও করা হয়েছে ৪ থেকে ৫ ইঞ্চি।

কেদার ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সুবলপাড় গ্রামের ঘর পাওয়া দুলালী জানান, ঘর নির্মাণের যাবতীয় উপকরণ পরিবহণ, পলিথিন, বালি ও ধর্ণার বাশ কিনে দিয়েছি। এতে ৪ হাজার টাকা ব্যয় হয়েছে বলে জানান তিনি। একই অভিযোগ করছেন, কচাকাটা ইউনিয়নের তরিরহাট এলাকার রওশনারা, বল্লভের খাষ ইউনিয়নের দামাল গ্রামের আমির আলী। হাসনাবাদ ইউনিয়নের সুবিধাভোগী হালিমা বেগমের স্বামী কলিমুদ্দিন।

এ বিষয় ঠিকাদার আকতার হোসেন জানান, ১ লাখ টাকা বরাদ্দের ঘরের নির্মাণ সামগ্রীর মধ্যে কাঠ, বালি, ইট, পলিথিন ব্যয় এবং টয়লেট বাবদ ৩৩ হাজার ৭০০ টাকা কন্ট্রাক নিয়েছি। টিন, খুঁটি এবং পরিবহনের বিষয় ইউএনও জানেন বলে জানান তিনি।