খালেদার সাজা কেন বাড়ানো হবে না : হাইকোর্ট

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট  মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা  কেন বাড়ানো হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। নিম্ন আদালতের দেওয়া ৫ বছরের সাজা বাতিল চেয়ে খালেদার জিয়ার দায়ের করা আপিলের সঙ্গে এই রুলের শুনানি হবে বলে আদালত আদেশে উল্লেখ করেছেন।

বুধবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে সরকার ও খালেদা জিয়াকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম খান। খালেদার পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, অ্যাডভোকেট এ জে মোহাম্মদ আলী ও অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন।

এর আগে মঙ্গলবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট  মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা বাড়াতে  দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়ের করা আপিল উপস্থাপন করা হয়।

গত ২৫ মার্চ দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান  হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় খালেদার সাজা বাড়াতে  আবেদন দায়ের করেন।

এ মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি বিচারিক আদালত খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন। তবে মামলার অপর আসামিদের ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেন আদালত। বিশেষ জজ আদালতের ওই রায়ের পর থেকে কারাগারে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, ‘খালেদা জিয়া ওই মামলায় মূল অপরাধী। কিন্তু অন্য আসামিদের তুলনায় তার কম সাজা হওয়ায় দুদক সাজা বাড়াতে  আপিল  করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’