গরুর হাটের মালিকানা নিয়ে তুরাগে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপে মারামারি। আহত-৪

প্রকাশিত

মৃণাল চৌধুরী সৈকত :
রাজধানীর তুরাগে গরুর হাটকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগর দুই গ্রুপে মারামারি ঘটনা ঘটেছে। এতে ৪ জন আহত হয়। আহতরা হলেন তুরাগ থানা আওয়ামীরীগের অর্থ সম্পাদক নূর হোসেন, সাগর ও বিল্লাল, যুবরাজসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজন আহতকে উত্তরা কার্ডইও কেয়ার হাসপিটালে প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ৮ টায় তুরাগের ১৫ নং সেক্টর এলাকায় এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শফিক এ্যান্ড ব্রাদার্স নামের একটি ইজারাদার প্রতিষ্ঠান প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও গরুর হাট ইজারা পায়। হরিরামপুর ইউপির চেয়ারম্যান আবুল হাসিমের ছেলে জাহিদুল হাসান এবং নাজমুল হাসান ১৫/২০ জন সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে গরুর হাটে প্রবেশ করে এবং নিজেদের জোর পূর্বক মালিকানা দাবী করেন। তারা হাটে প্রবেশ করে ব্যানার ও ফেষ্টুন ছিড়ে ফেলে। এসময় বাধা দিতে গেলে তারা ইজারাদারের লোকজনকে মারধর করে নূর হোসেন, সাগর, বিল্লাল ও যুবরাজ মেম্বারসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। এনিয়ে উভয়ের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
তুরাগ থানা আওয়ামীলীগের অর্থ সম্পাদক মো. নূর হোসেন তার মুঠোফোনে এপ্রতিনিধিকে জানান, হাট ইজারা নেয়ার পর জাহিদুল হাসান এবং নাজমুল হাসানকে একটি অংশ দেয়া হবে বলে জানিয়ে দেওয়ার পরও তারা হাটের পুরো মালিকানা দাবী করে এনিয়ে কথা কাটাকাটি হওয়ার এক পর্যায়ে ১৫/২০ জন সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে জাহিদুল ও নাজমুল আমাকে এবং শরিফ, সাগর ও যুবরাজ মেম্বারসহ বেশ কয়েক জনের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং মারধর করে। পরে জাহিদুলের লোকেরা ১২ নং সেক্টর কবরস্থান থেকে শুরু করে ১৫ নং সেক্টরের ২ নং ব্রীজ পর্যন্ত ১৫ আগষ্ট শোক দিবস উপলক্ষ্যে টাঙ্গানো মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ নেতাদের সকল ব্যানার ফেষ্টুন এবং ব্যনার ছিড়ে ফেলে এবং কিছু ফেষ্টুন আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলে। এই বিষয়ে উক্ত হাটের ইজারাদার কর্তৃপক্ষ তুরাগ থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও জানান তিনি।
অপরদিকে এবিষয়ে জানতে জাহিদুলের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এটা ইজারাদারদের ষড়যন্ত্র, আমাদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে । নূর হোসেনের সাথে কথাকাটাকাটি হয়েছে ধাক্কা-ধাক্কি হয়েছে এটা সত্য কিন্তুকোন মারামারি হয়নি। আর ব্যানার ফেষ্ঠুন কারা ছিঁড়েছে তা আমরা জানি না।
এ বিষয়ে তুরাগ থানার অপারেশন তদন্ত দুলাল হোসেন জানান, ঘটনাটি শুযনেছি, হাটের ইজারাদার কর্তৃপক্ষ অভিযোগ করলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
##