গহীনে রুশরা যেভাবে গড়েছিল বিজ্ঞাননগরী

প্রকাশিত

১৯৫৭ সালে সোভিয়েত সরকার সাইবেরিয়ার গভীরে একটা বিজ্ঞাননগরী গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেয়। শহরের নাম দেওয়া হয় অ্যাকাডেমিক সিটি বা আকাদেমগোরোদক ।

সিদ্ধান্ত নেয়া হয় শিক্ষাবিদদের শহর নামে পরিচিত হয়ে ওঠা ওই শহরে কাজ করতে যাবেন হাজার হাজার বিজ্ঞানী।

অ্যাকাডেমিক সিটিতে প্রথম যেসব বিজ্ঞানী কাজ করতে গিয়েছিলেন তাদের একজন ছিলেন ভিক্টর ভারাণ্ড।

“সেখানে সবকিছুই ছিল আলাদা। বাড়িগুলো একেবারে জঙ্গলের মাঝখানে। চারিদিক নিঝুম। বাতাস খুব পরিস্কার। নভেম্বরে যখন তুষার পড়ত, রাস্তাঘাট সব সাদা হয়ে যেত- একদিন-দুদিন- একসপ্তাহ পর্যন্ত বরফ গলত না। কখনও কখনও এক মাস পর্যন্ত বরফ থাকত।”

ভিক্টর ভারাণ্ড সেখানে গিয়েছিলেন তার স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে নিয়ে। ১৯৬২ সাল থেকে সেখানে তিনি কাজ করেছিলেন ৪৬ বছর। ইনস্টিটিউট অফ ইনঅরগ্যানিক কেমিস্ট্রি সংস্থায় রসায়নবিজ্ঞানের গবেষক হিসাবে তিনি সেখানে কাজে যোগ দেন।

ওই নতুন শহরের যার নাম দেওয়া হয় আকাদেমগোরোদক বা অ্যাকাডেমিক সিটি, সেখানে বাসিন্দা তখন ২৫ হাজার, যাদের প্রায় সবাই হয় বিজ্ঞানী, নয় বিজ্ঞানী হতে যাচ্ছেন। গবেষণা প্রতিষ্ঠানে যারা কাজ করছে তাদের গড় বয়স তিরিশের নিচে।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply