গাজীপুরে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্যে বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

প্রকাশিত

মৃণাল চৌধুরী সৈকত :  গাজীপুর গাছা সাংগঠনিক থানা যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য আমিন উদ্দিন সরকারের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ দন্ডবিধির স্মরক নং-১২৪১, ১২৪২, ১২৪৩, ১২৬০, ১২৬১, ১২৬২ ধারা অনুযায়ী গত ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং গাজীপুর আদালত টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। গাজীপুর পুলিশ তাকে খোঁজে বেড়াচ্ছে। বর্তমানে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে আমিন উদ্দিন সরকার পলাতক রয়েছে বলে জানা গেছে।
জানা যায়, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মীর উসমান গণি কাজলের দায়ের করা মামলায় বর্তমানে সে পলাতক রয়েছে। আদালত টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে।


এব্যাপারে আমিন উদ্দিন সরকারের মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি আরিফ হোসেন নামে এক ব্যক্তি রির্সিভ করে এব্যাপারে সঠিক উত্তর দিতে পারেনি।
আমিন উদ্দিন সরকারের ম্যানেজার আব্দুর রশিদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমিন উদ্দিন সরকার গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মীর উসমান গণি কাজলের সাথে দীর্ঘদিন যাবত ব্যবসা করতেন। বর্তমানে মীর উসমান গণি কাজল ২ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা পাওনা আছে এবং তার কাছে ৫/৬টি চেক দেওয়া আছে। চেক অনুপাতে তাকে কিস্তিতে টাকা পরিশোধ করার কথা থাকলেও যথা সময় টাকা পরিশোধ করা সম্ভব না হওয়ায় চেক ডিজনার মামলায় আমিন উদ্দিন সরকারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। আমিন উদ্দিন সরকারের বড় ভাই সমঝোতার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
##