গাজীপুরে পুলিশের অনন্য নজির! রাস্তায় পড়ে থাকা লাশটি ভ্যান চালিয়ে নিয়ে গেলেন পুলিশ

প্রকাশিত

তুহিন সারোয়ার-

মানুষ যখন নিজেকে গুটিয়ে নিচ্ছে মানবতার সেবা থেকে, তখন পুলিশ সেখানে স্থাপন করছে অনন্য নজির। আবারও এমন দৃশ্য দেখা গেল গাজীপুরের সাইনবোর্ড এলাকায়।

মহাসড়কের পাশে অজ্ঞাত এক বৃদ্ধের লাশ পড়ে ছিল। করোনাভাইরাসে বৃদ্ধের মৃত্য হয়েছে ভেবে ভয়ে কেউ কাছে এগিয়ে আসছিল না। এমনকি খবর পেয়ে পুলিশ একটি ভ্যানগাড়ি ডেকে আনলে এর চালকও লাশবহনে অপারগতা জানান। অবশেষে মরদেহটি ভ্যানে তুলে এক পুলিশ সদস্য নিজেই চালিয়ে থানায় নিয়ে যান।

ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুর মহানগরীর সাইনবোর্ড এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে। আনুমানিক ৫০-৬০ বছর বয়সী মৃত ওই বৃদ্ধের পরনে সাদা রংয়ের হাফ শার্ট, লুঙ্গি ও মাথায় সাদা রঙের টুপি ছিল।

মৃতের পরিচয় পাওয়া যায়নি জানিয়ে গাছা থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শনিবার সকালে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গাছা থানার পুলিশ কনস্টেবল রুবেল মিয়া জানান, শুক্রবার রাত ২টার দিকে সাইনবোর্ড এলাকার ডিউটি করছিলেন। এ সময় তিনি মহাসড়কের উপর অজ্ঞাত এক বৃদ্ধ পড়ে রয়েছেন বলে খবর পান।

তিনি বলেন, অনেকক্ষণ ধরে তার নিথর দেহ রাস্তার পাশে পড়ে ছিল। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সন্দেহে কেউ তার পাশে যায়নি। কনস্টেবল রুবেল মিয়া গিয়ে দেখতে পান বৃদ্ধের দেহ রক্তাক্ত। তার ধারণা অজ্ঞাত কোনও গাড়ি ওই ব্যক্তিকে চাপা দিয়েছে। রাত গভীর হওয়ায় বৃদ্ধের দেহটি বহন করার জন্য কোনও গাড়ি পাচ্ছিলেন না তিনি। এ সময় এক রিকশা-ভ্যান চালককে লাশটি থানায় নেওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।

তিনি বলেন, “ওই চালকও তার ভ্যানে লাশটি না তুলতে আমাদের হাতে-পায়ে ধরেন। পরে নিজেই ওই ভ্যানে লাশটি তুলে চালিয়ে থানায় নিয়ে যাই।”