গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে ধুম্রজাল

প্রকাশিত
মোঃআশরাফুল ইসলাম-গাজীপুর,
নব গঠিত গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের নতুন কমিটি নিয়ে নেতা-কর্মীদের  মধ্যে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে ‘পদবঞ্চিতরা’ শুরুতে নতুন কমিটি বাতিলের দাবিতে মাথায় কালো ব্যাচ পড়ে মিছিল করেছেন। নবগঠিত গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম ও ইমরান রেজাকে সাধারণ সম্পাদক করে কেন্দ্র থেকে নগর ছাত্রদলের সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি,সাধারন সম্পাদক, যগ্ম সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ৫ সদস্যের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। এরপর ২২ জুলাই গাজীপুর চৌরাস্তা জাগ্রত চৌরঙ্গীর সামনে কমিটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করে ‘পদবঞ্চিতরা’। মহানগরের  ঢাকা- জয়দেবপুর রাস্তায় আগুন জালিয়ে প্রতিবাদ জানায়।
সংগঠনের ‘ত্যাগী’ নেতাকর্মীদের কমিটিতে জায়গা না হওয়ায় মহানগর ছাত্রদলে মধ্যে অনেকেই দ্বিধাদ্বন্দে ভোগছেন। ২৩ জুলাই বিকালে নবগঠিত গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের পকেট কমিটি বাতিলসহ কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি মো. রাজীব আহসান এবং সাধারণ সম্পাদক আক্রামূল হাসান মিন্টুর কুশপুত্তলিকা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়।
নতুন কমিটিকে কেন্দ্র করে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি হয়েছে।
‘পদবঞ্চিতদের’ নেতৃত্বে থাকা নাহিদ চৌধুরী বাবু সাংবাদিকদের বলেন, কিভাবে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ৫ সদস্য বিশিষ্ঠ কমিটি ঘোষনা করলো আমি তা কর্মীদের বুঝাতে পারছিনা।
তিনি আরোও বলেন, নগর ছাত্রদল খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার রাজনীতি করে। কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের নেতাদের পকেট থেকে গাজীপুর মহানগর ছাত্রদল কমিটি বেরিয়ে এসেছে। আমরা কোন গ্রুপিংয়ে বিশ্বাসী নই।
তবে নতুন কমিটিতে আসল নেতৃত্বের প্রতিফলিত ঘটেনি বলেই মনে করেন নগর ছাত্রদলের সভাপতি পদবঞ্চিত থাকা নাহিদ চৌধুরী বাবু। সবাইকে নিয়েই নতুন করে মহানগর কমিটি গঠন করলে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের মধ্যে সাবেক প্রধান মন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন চলবে
বর্তমানের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের পকেট কমিটি বাতিল করে সংগ্রামের ত্যাগী  নেতারা নতুন কমিটি স্থান পেলে কোনো সমস্যা নেই। তা না হলে মাঠের নেতাকর্মীরা মাঠেই থাকবে।