গাজীপুর শ্রীপুরে পুলিশের চেকপোস্ট ! পাড়া-মহল্লায় বাঁশের ব্যারিকেড !

প্রকাশিত

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ
দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি খবরে সাধারণ মানুষের মধ্যে কিছুটা ভয় কাজ করায় গাজীপুর জেলার শ্রীপুরের বিভিন্ন এলাকা স্থানীয়দের উদ্যোগে লকডাউন করা হয়েছে। গ্রাম,পাড়া-মহল্লার প্রবেশপথে রশি ও বাঁশের ব্যারিকেড দেয়া হয়েছে। তবে, ঔষধ কেনা ও খাবারের প্রয়োজনে যাতায়াতে বাঁধা নেই বলে জানিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবীরা। অন্যদিকে, থানা পুলিশ মূল প্রবেশ পথে ১টি চেকপোস্ট বসিয়েছে। বিনা কারণে কোন ব্যক্তি বা যানবাহন চলাচল করতে দিচ্ছে না পুলিশ।
৮ এপ্রিল বুধবার শ্রীপুর পৌর এলাকার কেওয়া, উপজেলার গেসিংগা, তেলিহাটি , কাওরাইদ ও গাজীপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের একাধিক সংযোগ সড়কের প্রবেশপথ বন্ধ থাকতে দেখা যায়। জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয়দের দাবী, করোনা ভাইরাস সম্পর্কে মানুষের মাঝে সচেতনতায় পাড়া-মহল্লার বাসিন্দারা স্ব-উদ্যোগে নিজেদের এলাকা লকডাউন করেছে। খাবার বা ঔষধ কেনার প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় যাতে না চলাচল করতে পারে সেজন্য করা হচ্ছে সচেতনতা। এছাড়াও এসব এলাকা থেকে কাউকে বেরুতে এবং ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। তবে, কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের সুরক্ষার জন্য বিভিন্নভাবে চলছে স্থানীয়দের নানা চেষ্টা। বিত্তবানরা খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী সহায়তা দিচ্ছে কর্মহীনদের। তরুণদের উদ্যোগে বিভিন্ন এলাকায় জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে।


তেলিহাটি ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ড সদস্য তারেক হাসান বাচ্চু জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে বার বার নিষেধ করার পরও কিছু মানুষ রয়েছে অযথাই রাস্তয় ঘুরাঘুরি করে। তাই ব্যারিকেডের এমন ব্যবস্থাকে আমি স্বাগত জানাই। তিনি আরও জানান, এলাকার কেউ বাজার থেকে ফিরলে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে হ্যান্ড স্যানিটাইজার লাগিয়ে গ্রামে প্রবেশ করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সরকারের পাশাপাশি প্রতিটি এলাকার যুব সমাজ এভাবে এগিয়ে আসলে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।
শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী বলেন, মানুষ যাতে বিনা কারণে যাতায়াত করতে না পারে এবং পণ্যবাহী ট্রাক ছাড়া যানবাহন চলাচল বন্ধে এ থানার উত্তর প্রান্তের ১টি প্রবশেপথে চেকপোস্ট বসিয়েছে পুলিশ। এছাড়াও মানুষ যাতে বাজারে অযথায় ঘুরাঘুরি করতে না পারে সেজন্য পুলিশের ৮ দল নিয়মিত টহল দিয়ে যাচ্ছে।