‘গ্রিজমানকে পেতে চাও, ২০ কোটি ইউরো দাও!’

প্রকাশিত

সমর্থকদের ‘ডাবল ধামাকা’ উপহার দিতে চায় বার্সেলোনা। নিজেদের ধরাছোঁয়ার বাইরে নিতে নতুন দুজন খেলোয়াড় কিনতে চায় কাতালান ক্লাবটি। একজন লিভারপুলের ফিলিপে কুতিনহো, আরেকজন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের আঁতোয়ান গ্রিজমান। তবে এই জোড়া ইচ্ছা পূরণে বার্সার কোষাধ্যক্ষকে বেশ খাটতে হবে। শুধু গ্রিজমানকে কিনতেই তাঁদের খরচ করতে হবে ২০ কোটি ইউরো!

মৌসুমের শুরুতে নেইমারকে হারানোর পর অঙ্ক কষে নিয়েছিল বার্সেলোনা। নেইমারের সুবাদে পাওয়া ২২২ মিলিয়ন ইউরো তারা স্কোয়াড সাজাতেই খরচ করবে। ১০৫ মিলিয়ন ইউরো (শর্ত সাপেক্ষে আরও ৪০ মিলিয়ন ইউরো) খরচায় নিয়ে আসা হয়েছে ওউসমানে ডেম্বেলেকে। কুতিনহোকে চেয়েও পাওয়া যায়নি। অ্যাটলেটিকোর ওপর দলবদলের নিষেধাজ্ঞা থাকায় দল ছাড়েননি গ্রিজমান। তখনই এই জানুয়ারি কিংবা জুলাইয়ের জন্য ২৫০ মিলিয়নের তহবিল গুছিয়ে রাখতে শুরু করেছে বার্সেলোনা। ১৫০ মিলিয়ন কুতিনহোর জন্য আর বাকিটা গ্রিজমানের ‘রিলিজ ক্লজ’।
তবে বার্সার এই পরিকল্পনায় খানিকটা পরিবর্তন আসতে পারে। কদিন আগেই ফিফার কাছে বার্সার বিপক্ষে নালিশ করেছে অ্যাটলেটিকো। তাদের না জানিয়ে খেলোয়াড় ভাগিয়ে নিচ্ছে বার্সা! এরই মধ্যে গ্রিজমানের জন্য সবার আগে আগ্রহ দেখানো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও সরে দাঁড়িয়েছে। ২৬ বছর বয়সী ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ডের বার্সার জার্সি গায়ে চাপানো তাই সময়ের ব্যাপার মনে হচ্ছিল। কিন্তু কাজটা যে সহজ হবে না, সেটা মনে করিয়ে দিয়েছেন অ্যাটলেটিকোর প্রধান নির্বাহী মিগুয়েল অ্যাঙ্গেল গিল মারিন, ‘অ্যাটলেটিকো গ্রিজমানকে এখন বিক্রি করতে চায় না, মৌসুমের শেষেও না। সে আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। সে এখানে অনেক পরিণত। আমরাও ওর সঙ্গে পরিণত হয়েছি। আমরা আরও ভালো হতে চাই এবং সেটা একসঙ্গে। গত মৌসুমে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি ওকে ধরে রাখতে, এবারও তাই করব।’
তবে একজন খেলোয়াড় যদি ক্লাব ছাড়তে চান, তাঁকে আটকানো কঠিন। নেইমারই তো তাঁকে পথ দেখিয়ে দিয়েছেন। গিল মারিনও সেটা মেনে নিয়েছেন, ‘গ্রিজমান যেতে চাইলে সেটা আটকানো সম্ভব নয়, কিন্তু মৌসুম শেষ হওয়ার আগে এটা অসম্ভব।’
জানুয়ারিতেই অ্যাটলেটিকোর দল বদলের নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে। ফলে আক্রমণে একসঙ্গে দেখা যাবে ডিয়েগো কস্তা ও গ্রিজমানকে। গিল মারিন তাই দলের এমন অবস্থায় গ্রিজমানকে বেচার কথা ভাবতেই পারছেন না। আর বার্সেলোনাকেও জানিয়ে দিয়েছেন তাঁদের স্বপ্নের জুটি ভাঙতে চাইলে কী করতে হবে কাতালানদের, ‘গ্রিজমান ও ডিয়েগো কস্তাকে একসঙ্গে পেতে অনেক কষ্ট করতে হয়েছে এবং আমার ধারণা, এটা আমাদের জন্য খুব ভালো হবে। আর ১ জুলাইয়ের আগ পর্যন্ত গ্রিজমানের “ক্লজ” ২০০ মিলিয়ন।’
‘ডাবল ধামাকা’র জন্য বার্সাকে সম্ভবত জুলাই পর্যন্ত অপেক্ষাই করতে হচ্ছে।