চমোন্তাজে পূর্বের ঘটনাকে কেন্দ্র করে মা ছেলের উপর হামলা !!

প্রকাশিত

মু. জিল্লুর রহমান জুয়েল, পটুয়াখালী : পটুয়াখালীরর রাংগাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের পূর্বের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২৪ আগষ্ট ২০১৮ইং রোজ শনিবার সন্ধায়,  স্থানীয় মধ্য চরমোন্তাজ হাইস্কুলের পাশেই, পূর্বে উৎপেতে থাকা ফরকান মাওলানারর ছেলে ফরিদ ও তার পেটোয়া বাহিনীর দেশীয় ধারালো অস্র ও লাঠিসোটা নিয়ে ঝাপিয়ে পরে চরমোন্তাজ ইউনিয়নের ছাত্র কল্যাণ পরিষদের সভাপতি,  ঢাকা বাংলা কলেজের ছাত্র মোঃ সাঈফুল ও তার মা রাজিয়া বেগমের উপর। এতে গুরুতর আহত হলে,  রাত আনুমানিক পৌনে বারটায় গলাচিপা সরকারী সাস্থ্য কমপ্লেক্স মুমূর্ষু  অবস্থায় ডাক্তার সালাউদ্দিন মাহমুদের চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভর্তী আছেন। এ বিষয়ে আহত ঢাকা বাংলা কলেজের ছাত্র মোঃ সাঈফুল প্রতিবেদককে বলেন আমি ঢাকাস্থ চরমোন্তাজ ইউনিয়নে ছাত্র কল্যান পরিষদের সভাপতি হওয়ায় বিগত দিনে ফোরকান মাওলানা ও তার ছেলে ফরিদের সাথে পূর্বেও মারামারি হয়েছিলো বলে সূত্রে জানা যায়। এবিষয়ে চমোন্তাজ পুলিশ ফাড়িঁর তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সুদেব হালদার মুঠোফোনে জানতে চাইলে, তিনি মুঠোফোনে জানান, পূর্বের ঘটনায় নিয়ে, ২৪ আগষ্ট শানিবার  কেন্দ্রে শালিসী হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি। শালিসী না হওয়াতে ফিরে যাওয়ার সময় হামলার সিকার হয়েছে বলে আহত পরিবার জানিয়েছেন। এবিষয়ে হামলা কারি ফরিদের ০১৭১০৭৪৪৯৪২ মোবাইলে কল করলে বন্ধ থাকায় কোন কথা বলা যানি।