চরভদ্রাসনে শিক্ষকের বসত বাড়ীতে হামলা

প্রকাশিত

লিয়াকত আলী (লাভলু)চরভদ্রাসন (ফরিদপুর) প্রতিনিধি –
ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা গাজীরটেক ইউনিয়নের চরহাজীগঞ্জ ফকির ডাঙ্গী গ্রামে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে এক শিক্ষকের বসত বাড়ীতে হামলা করে উক্ত পরিবারের চার সদস্যকে প্রতিপক্ষরা আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অত্যন্ত তুচ্ছ ঘটনার জ্বের ধরে একই গ্রামের প্রতিপক্ষ শেখ মিরাজ (২৪), শেখ হযরত (২২), শেখ মোশারফ (২০) ও শেখ কাইমদ্দিন (৫০) সহ অজ্ঞাতরা লাঠী সোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে শিক্ষকের বাড়ীতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ।
এ হামলায় উপজেলার চরহরিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহঃ শিক্ষক মোঃ মোস্তফা কামাল (২৬) তার বড় ভাই রফিকুল ইসলাম (৪০) ভাবী হেলেনা বেগম (৩৫) ও ভাতিজা মনিরুজ্জামান (১৯)কে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করেছে বলে অভিযোগ। আহতদের মধ্যে শিক্ষক পরিবারের তিনজন চরভদ্রাসন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং ভাই রফিকুল ইসলামের মাথায় গুরুতর জখম নিয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ হামলা চলাকালিন প্রতিপক্ষের শেখ মিরাজও আঘাত প্রাপ্ত হয়ে চরভদ্রাসন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলেও জানা গেছে।
এ ব্যপারে চরভদ্রাসন থানায় একটি মামলা প্রক্রীয়াধীন রয়েছে। চরভদ্রাসন থানা উপ-পরিদর্শক অতুল জানান, “ ঘটনাস্থল আমি পরিদর্শন করেছি, আহতরা সবাই রুগী চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত আছেন। বাদীপক্ষ থানায় এলে মামলা নেওয়া হবে”।
জানা যায়, ঘটনার দিন দুপুরে প্রতিবেশী প্রতিপক্ষের বাড়ী থেকে গৃহস্থালী কাজের খুনতি (সাবল) ধার চাওয়া নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জ্বের ধরে একই দিন বিকেলে প্রতিপক্ষরা শিক্ষকের বাড়ীতে আকস্মিক হামলা চালায়। এ হামলায় শিক্ষক পরিবারের চারজন ও প্রতিপক্ষ পরিবারের একজন সহ মোট পাঁচজন আহত হয়।