জনগণের রায় মাথা পেতে মেনে নেব: লিটন

প্রকাশিত

রাজশাহী প্রতিনিধি : রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, কেন্দ্রে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে। জনগণের যে কোনো রায় আমি মাথা পেতে নেব। নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে। এভাবে ভোটগ্রহণ চললে জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী।

সোমবার (৩০ জুলাই) সকাল ৮টা ১০ মিনিটে নগরীর ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের উপশহর স্যাটেলাইট হাইস্কুল কেন্দ্রে ভোট দেয়া শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ভোটগ্রহণ শুরুর পরই বিরোধী প্রার্থীর অভিযোগ শুরু হয়েছে। আশা করছি জনগণ আমাকে নির্বাচিত করবেন। তবে ভোটের পরিবেশ যেন নষ্ট না হয় সেদিকে দৃষ্টি দিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনে নগরপিতা বাছাইয়ের লড়াই শুরু হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলবে টানা ভোটগ্রহণ।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ৫, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৬০ ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৫২ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ সিটিতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পাশাপাশি বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মাঠে রয়েছেন।

এর বাইরে একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ সিটিতে আওয়ামী লীগের এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও বিএনপির মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের মধ্যে মূল লড়াই হবে বলে জানা গেছে।

৩০টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ সিটিতে ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ১৮ হাজার ১৩৮ জন, যার মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৫৬ হাজার ৮৫ ও নারী এক লাখ ৬২ হাজার ৫৩ জন।