জামালপুরে পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত

জামালপুর সদর উপজেলার দাপুনিয়া এলাকার একটি পুকুর থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার দুপুর ১২টার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ব্যক্তির নাম সাইফুল ইসলাম (৪০)। তিনি সদর উপজেলার লাঙ্গলজোড়া এলাকার মৃত আমান উল্লাহর ছেলে। নিহত সাইফুল পেশায় ট্রাক মিস্ত্রি ছিলেন।
গত শনিবার রাত থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। পরিবারের দাবি, দুর্বৃত্তরা তাঁকে মেরে পুকুরে ফেলে দিয়েছে। পুলিশের ধারণা, মদ্যপ অবস্থায় থাকার কারণে সাইফুল অসাবধানতাবশত পুকুরে পড়ে মারা যেতে পারেন।

পুলিশ ও নিহত সাইফুলের স্বজন সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার রাতে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। পরিবারের সদস্যরা তাঁকে বিভিন্ন জায়গায় খুঁজেও সন্ধান পাননি। আজ দুপুরে স্থানীয় লোকজন ওই পুকুরে একটি লাশ ভাসতে দেখে। খবর পেয়ে তাঁর স্ত্রী শিল্পী বেগম গিয়ে লাশ শনাক্ত করেন। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত ব্যক্তির শ্যালক মিলন মিয়ার ভাষ্য, গত শনিবার গ্যারেজের কাজ শেষ করে সাইফুল বাড়িতে যান। পরে এক ব্যক্তি তাঁকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যান। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। পুকুরে তাঁর লাশ পাওয়া গেছে। মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তিনি দাবি করেন, সাইফুলকে কেউ হত্যা করে পুকুরে লাশ ফেলে দিয়েছে।

জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিমুল ইসলাম বলেন, নিহত ব্যক্তি নিয়মিত মদ পান করেন। নিখোঁজ হওয়ার দিনও তিনি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন বলে জানা গেছে। হয়তো মদ্যপ অবস্থায় পুকুরের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় পড়ে গেছেন।
ওসি জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করার প্রস্তুতি চলছে। প্রাথমিক সুরতহালে শরীরের কোথাও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের পর মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।