জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা দিয়ে এলাকার উন্নয়ন ঘটাবো – হাসান সরকার

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে ২০ দলীয় জোট মেয়রপ্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার গতকাল জয়দেবপুর ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে লতিফ মেম্বারের জানাযায় শরিক হন। লতিফ মেম্বার ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতি ছিলেন। বিকেলে হাসান সরকার টঙ্গীর মিলগেটে ৫৫ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিলে শরিক হন। এসময় তাকে নিয়ে আওয়ামীলীগ নেতাদের বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, আল্লাহ তো যে কাউকেই অসুস্থ করতেই পারেন। আমি তো আমার ঠেং (পা) দিয়ে উন্নয়ন করবো না। আমি উন্নয়ন করবো আমার জ্ঞান, অভিজ্ঞতা ও সততা দিয়ে। কাজেই রাজনৈতিক ভাষায় কথা বলুন। আমি লাঠি দিয়ে লড়াই করবো না। জ্ঞান দিয়ে লড়াই করবো।
তিনি আওয়ামীলীগের প্রতিদ্বন্দী মেয়র প্রার্থীর উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের সরকারের সময় আপনি তো উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন। এলাকার উন্নয়ন তো দূরের কথা কোথাও এক পাথি মাটি ফেলেছেন তা দেখাতে পারবেন ? দীর্ঘ ৫ বছর ভাইস চেয়াম্যান থাকাবস্থায় কোন উন্নয়ন করেছেন তা দেখাতে পারবেন না। পারবেন কলখারখানায় ঝুটের ব্যবসা করেছেন। আমাদের তরুণ সমাজকে ধ্বংস করেছেন। যাদেরকে এখন সঠিক পথে ফিরিয়ে আনা আমাদের জন্য কষ্টকর হবে।
তিনি বলেন, এই এলাকায় আমার শিশুকাল, শৈশবকাল ও যৌবনকাল কটিয়েছি। একটি বিশেষ সময়ে এসে এলাকাবাসীর জন্য কিছু করে যেতে চাই। তিনি বলেন, আমাদের নেত্রীকে মিথ্যা মামলায় নিষ্ঠুভাবে কারাগারে বন্ধী রাখা হয়েছে। আমরা সরকারের সাথে যুদ্ধ করবো না। পৃথিবীর যে কোন অস্ত্রের চেয়ে শক্তিশালী চোখের পানি। মজলুম মানুষের চোখের পানিতে এই জালিম সরকার খোদার গজবে নিপতিত হবে।
দোয়া মাহফিলে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী বলেন, হাসান উদ্দিন সরকার একজন বিচক্ষন রাজনীতিবীদ। তার জ্ঞানের পরিধি অনেক ব্যাপক। তিনি একজন দায়িত্বশীল মানুষ। বিজ্ঞ রাজনীতিবীদ হিসেবে বিএনপি তাকে প্রার্থী করেছে। তিনি স্বনামধন্য একটি পরিবারের সন্তান। গাজীপুরে বিএনপি এবং সরকার পারিবারের হাত থেকে কেউ ভোট ছিনিয়ে নিতে পারবে না। তিনি বলেন, ভোট আমাদের ময়দান আমাদের। এই নির্বাচনে আমাদের জিতইে হবে। তিনি বলেন, জাল ও ভুয়া তথ্য দিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনকে অন্যায়ভাবে কারাগারে বন্ধী রাখা হয়েছে। সরকার যে উদ্দেশ্যে তাকে কারাকারে বন্ধী রেখেছে তাদের সেই উদ্দেশ্য পূরণ হবে না। কোন অবস্থাতেই খালেদা জিয়া বিহীন নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না।
এছাড়াও গতকাল টঙ্গীর ৫৫ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত দোয়া ও ইফতার মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাহ উদ্দিন সরকার। ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মো. শরিফ মিয়ার সভাপতিত্বে ও টঙ্গী থানা বিএনপির সহ-প্রচার সম্পাদক জামাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, স্বেচ্ছা সেবক দলের কেন্দ্রীয় নেতা আরিফ হোসেন হাওলাদার, টঙ্গী থানা বিএনপির সহ-সভাপতি মজিবুল হক দুলাল হাজী, সহ-সভাপতি আবুল হাসেম, ৫৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. সেলিম হোসেন, ইমান আলী সরকার, নূর হোসেন, জসিম উদ্দিন, আবু শাকের, আল-আমিন, গোলাম মোর্শেদ খোকন, আবুল ইউনুস লিটন, আবুল কাশেম, আমির হোসেন, খুরশেদ আলম, নাজমুল হোসেন মন্ডল, হারুন-অর-রশিদ, মনির হোসাইন, দেলোয়ার হোসেন, আব্দুর রহমান বাবু, ফারুক হোসেন বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা।
##