টঙ্গীতে পানির রিজার্ভ ট্যাংকিতে কাজ করতে গিয়ে ৩ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত

প্রধান সম্পাদক :
টঙ্গীতে নির্মাণাধীন ভবনের পানির রিজার্ভ ট্যাংকি কাজ করতে গিয়ে ৩ জন শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে টঙ্গীর খরতৈল ব্যাংক পূর্বপাড়া এলাকায় ইউসুফ আলী হাওলাদারের বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহতরা হলেন- মো. শাহীন মিয়া (২৫), আতিক হোসেন (৩০) ও ফারুক মিয়া (৩৫)।
এলাকাবাসীরা জানান, গতকাল ১১টার দিকে পাঁচজন শ্রমিক ইউসুফ আলীর পাঁচতলা ভবনের নীচ তলার পানির রিজার্ভ ট্যাংকি পরিস্কার করতে যায়। প্রথমে শাকিল নামে একজন নামতে গিয়ে প্রচন্ড গ্যাসের কারনে উঠে আসে। পরে মো. শাহীন মিয়া ট্যাংকের ভিতরে নেমে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তার কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে তার আপন ভাই আতিক হোসেন ওই ট্যাংকিতে নামে। দুইজনের কোন শব্দ না পেয়ে পরে ফারুক মিয়া ট্যাংকিতে নামে। তাদের কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে উপড়ে থাকা নির্মাণ শ্রমিক শাকিল ও মাহবুব ডাকচিৎকার শুরু করে। এসময় এলাকার লোকজন টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসকে ঘটনাটি জানায়। খবর পেয়ে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছার আগেই এলাকাবাসী লাশ তিনটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয় বলে জানিয়েছেন টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মো. আশিকুর রহমান।
নিহত শাহীন ও আতিকের বোন নার্গিস বেগম জানান, শাহীন ও আতিক সম্পর্কে আপন দুই ভাই। তারা খরতৈল এলাকায় বসবাস করে বিভিন্নস্থানে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করতো।
এব্যাপারে টঙ্গী থানার ওসি মো. কামাল হোসেন জানান, বিষাক্ত গ্যাসের কারনে তাদের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। এঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
নিহত শাহীন ও আতিক ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়ীয়া থানার কালাদহ গ্রামের বাসিন্দা এবং নিহত ফারুক মিয়া রংপুর জেলার বাউনিয়া থানার নাজিরদহ গ্রামের বাসিন্দা।
##