টঙ্গীতে প্রেমিকের প্রতারণার শিকার হয়ে প্রেমিকার আত্বহত্যা

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিনিধি :  গাজীপুর মহানগরের টঙ্গী মিলগেট এলাকায় প্রেমিকের প্রতারণার শিকার হয়ে প্রেমিকা সুমি আক্তার (১৮) নামে এক পোশাক শ্রমিক ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্বহত্যা করেছে।
গতকাল রোববার সকালে মিলগেইট জেরিনা ট্রেক্সটাইল মিলসের ভেতরে শ্রমীক স্টাফ কোয়াটারে একটি কক্ষের ভিতর থেকে টঙ্গী থানা পুলিশ নিহতের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহিদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।
নিহত সুমির বোন রোকশানা ও এলাকাবাসী জানায়, পার্শবর্তী হামিম গ্রুপের সিসিএল এর শ্রমিক মো. সাগর (২৫) নামে এক যুবকের সাথে দীর্ঘদিন পুর্বে পরিচয় হয় সুমি আক্তারের। সেই সুত্রে দুজনের মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে ওই যুবক তাকে বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে প্রতারণা কওে এবং গত কয়েকদিন যাবৎ সুমির সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। পরে গত শনিবার সন্ধ্যা রাতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিক সাগরের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে সুমি আর সাগরের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। রাত ৮ টায় বড় বোন রোকশানাসহ তিন বোন এক সাথে কাজে যাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু রোকশানাসহ দুই বোন কাজে চলে গেলে সুমি অসুস্থতার কথা বলে একাই বাসায় থেকে যায় এবং প্রেমিকের প্রতারণা শিকার হয়ে অভিমান করে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। সকালে অপর দুই বোন কাজ থেকে বাসায় ফিরে সুমির ঝুলন্ত লাশ দেখে থানায় খবর দিলে টঙ্গী থানা এস আই সিদ্দিকুর রহমানসহ একদল পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।
টঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।
##