টঙ্গীতে ফল ব্যবসায়ী হত্যা

প্রকাশিত

স্টাফ রিপোর্টার, টঙ্গী :টঙ্গীর সাতাইশ এলাকায় গতকাল শুক্রবার ভোর রাতে জবেদ মোল্লা (৫৫) নামে এক ফল ব্যবসায়ীকে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। নিহত ব্যবসায়ী ঢাকা, গাজীপুর ও টঙ্গীর বিভিন্ন দোকানে বিভিন্ন ধরনের ফল সবরাহ করতেন।
নিহতের ভাগ্নে রিয়াজ জানায়, গত ৩ দিন আগে তার মামা মাগুড়ার মোহাম্মদপুর থেকে একটি ভাড়া করা পিকআপ যোগে ফলের চালান নিয়ে রাজধানীর কাওরান বাজারে আসেন। সেখানে তিনি তার কাজ শেষে গত বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুর চৌরাস্তার রাসেল সরকার মার্কেটে এসে সেখানে ফল সরবরাহ না করে ফিরে যান। এরপর থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। ফলসহ তাকে নিয়ে আসা পিকআপটিও নিখোঁজ রয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে টঙ্গীর সাতাইশ উচ্চ বিদ্যালয়ের পেছনে ধান ক্ষেতে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে টঙ্গী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে জবেদ মোল্লার আত্মীয়রা থানায় এসে লাশ সনাক্ত করে। এ ঘটনায় টঙ্গী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের শেষে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশের ধারনা নিহত ব্যবসায়ীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তাকে ওইখানে ফেলে রেখে গেছে দৃবৃর্ত্তরা। খুন হওয়া জবেদ মোল্লা মাগুড়া জেলার মোহাম্মদপুর থানা এলাকার শিরগ্রামের মৃত গফুর মোল্লার ছেলে।
টঙ্গী থানার অফির্সাস ইনচাজ মো.ফিরোজ তালুকদার জানান, কে বা কারা এ খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে তার রহস্য উদ্ঘাটনে জোর তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে এর কারন জানা যাবে।