ঠাকুরগাঁওয়ের নিশ্চিন্তপুর এলাকায় মাদ্রাসার ছাত্রকে পুড়িয়ে হত্যা! ৮জনকে আটক

প্রকাশিত

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ে এক মাদ্রাসার ছাত্রকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এখন পর্যন্ত ৮জনকে আটক করেছে পুলিশ। আজ শনিবার সকালে মাদ্রাসার টয়লেট থেকে পুরে যাওয়া মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ঠাকুরগাঁও শহরের নিশ্চিন্তপুর এলাকার দুরুল উলুম কাওমী মাদ্রাসায় সদর উপজেলার বাহাদুরপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক (১৪) নামে এক মাদ্রাসার ছাত্রকে পুড়িয়ে হত্যা করে ফেলে রাখে। আবু বক্কর ওই মাদ্রাসার প্রায় ৫ বছর ধরে লেখাপড়া করছিল। এ ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মাদ্রাসারা অধ্যক্ষ ইয়াসিন আলীসহ আট জনকে আটক করে। পরে লাশটি উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপতালের মর্গে পাঠানো হয়।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ আব্দুল লতিফ জানান, পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। এটি হত্যা না আতœহত্য তা তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। আমরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাদ্রাসর সুপার সহ ৮ জনকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পরবর্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।