ডু প্লেসিস ১২০, কোহলি ১১২, ভারতের জয়

প্রকাশিত

ক্রীড়া ডেস্ক: ছয় ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে ভারত। লিড নিয়েছে ১-০ ব্যবধানে। লড়াইটা ছিল মূলত দুই অধিনায়কের। ফাপ ডু প্লেসিস ধ্বংসস্তুপ থেকে দলকে টেনে তুলেন অনবদ্য সেঞ্চুরিতে। ছুড়ে দেন লড়াকু টার্গেট। সেই টার্গেট সেঞ্চুরি করে মামুলি বানিয়ে ফেলেন বিরাট কোহলি।

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক ফাপ ডু প্লেসিসের ১২০ রানের ইনিংসে ভর করে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৬৯ রান তোলে। জবাবে বিরাট কোহলির সেঞ্চুরিতে (১১২) ভর করে ৬ উইকেট ও ২৭ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয় ভারত।

২৭০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই ছন্দে ছিল ভারত। প্রয়োজনীয় রান রেটের সঙ্গে তাল রেখে রান তুলেছে। ৩৩ রানে প্রথম ও ৬৭ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারানোর পর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় ভারত। আর সেটা কোহলি ও আজিঙ্কা রাহানের ব্যাটে ভর করে। তৃতীয় উইকেটে কোহলি ও রাহানে ১৮৯ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান।

দলীয় ২৫৬ রানের মাথায় রাহানে আউট হয়ে যান। যাওয়ার আগে ৮৬ বলে ৭৯ রান করে যান। দলকে জয়ের বন্দর থেকে ৮ রান দূরে রেখে আউট হন অধিনায়ক কোহলি। যাওয়ার আগে ১১৯ বলে ১০টি চারে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩৩তম সেঞ্চুরি করে যান (১১২ রান)। এরপর ধোনি ও পান্ডিয়া মিলে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।

অনবদ্য সেঞ্চুরি করে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন বিরাট কোহলি।

তার আগে দক্ষিণ আফ্রিকার ২৬৯ রানের ইনিংসে অধিনায়ক ডু প্লেসিস ১২০ রান করেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৭ রান করেন ক্রিস মরিস। ৩৪টি রান আসে কুইন্টন ডি ককের ব্যাট থেকে। অপরাজিত ২৭টি রান করেন আন্দিলে ফেলুকওয়ে।

বল হাতে ভারতের কুলদীপ যাদব ৩টি, যজুবেন্দ্র চাহাল ২টি, ভুবনেশ্বর কুমার ও বুমরাহ ১টি করে উইকেট নেন।