তুরস্ক-যুক্তরাষ্ট্র একসঙ্গে কাজ করবে সিরিয়াতে

প্রকাশিত

আর্ন্তজাতিক ডেস্কঃ সিরিয়ায় একসঙ্গে কাজ করার বিষয়ে একমত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্ক। কুর্দি গেরিলা গোষ্ঠী ওয়াইপিজি’র বিরুদ্ধে তুরস্কের সামরিক অভিযান নিয়ে কিছুদিন ধরে দুই দেশের মধ্যে টানাপড়েন চলার পর এই সমঝোতা হলো।

শুক্রবার তুরস্কের রাজধানী আংকারায় যৌথ সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন ও তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু এ ঘোষণা দেন।

তারা জানান, যেসব ইস্যুতে দু’পক্ষের মধ্যে টানাপড়েন দেখা দিয়েছিল সেগুলো মিটমাট করতে আংকারা এবং ওয়াশিংটন একটি ওয়ার্কিং গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করবে।

টিলারসন বলেন, ‘আমরা এখন আর একা কিছু করব না। আমরা একসঙ্গে কাজ করব এবং এ লক্ষ্য অর্জনের জন্য আমাদের সামনে কিছু ভালো পথ রয়েছে।’

সিরিয়ায় ওয়াইপিজির বিরুদ্ধে কথিত সামরিক অভিযান ‘অলিভ ব্রাঞ্চ’ নিয়ে ধৈর্য ধরার আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে মেভলুত চাভুসওগ্লু বলেন, সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিষয়ে দুপক্ষ একমত হয়েছে। তিনি বলেন, তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্রর মধ্যকার সম্পর্ক জটিল অবস্থায় চলে গিয়েছিল কিন্তু সেখান থেকে বেরিয়ে আসার উপায় নিয়ে কাজ করবে ওয়াশিংটন ও আংকারা।

এদিকে গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে- সিরিয়ার মানবিজ এলাকায় যুক্তরাষ্ট্রর পাশাপাশি তুরস্কের সেনা মোতায়েন রাখার বিষয়ে আংকারা প্রস্তাব দিয়েছে। বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্র বিবেচনা করছে বলে তুরস্কের একটি সূত্র দাবি করেছে।

সূত্র: পার্স টুডে