প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দিয়া-করিমের পরিবার, ক্ষতিগ্রস্থ দুই পরিবারকে ৪০ লাখ টাকা সহায়তা

প্রকাশিত

প্রধান সম্পাদক :  রাজধানী কুর্মিটোলায়  বাস চাপায় মারা যাওয়া দিয়া খানম মিম ও আব্দুল করিমের পরিবারের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেছেন।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে বারটার দিকে নিহত দুই পরিবারের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যান। সেখানে তাদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী তাদের সমবেদনা জানান এবং তাদের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। এসময় ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক পরিবারকে ২০ লাখ টাকা করে পারিবারিক সঞ্চয়পত্র তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় দিয়া ও করিমের পরিবারের পক্ষ থেকে যে সব দাবি করা হয় তার মধ্যে

এক. শিক্ষার্থীদের জন্য শহীদ রমিজউদ্দিন স্কুলকে পাঁটটি বাস দেওয়া
দুই. রমিজউদ্দিন স্কুল সংলগ্ন বিমানবন্দর সড়কে আন্ডার পাস নির্মাণ
তিন. দেশের প্রতিটি স্কুল সংলগ্ন রাস্তায় স্পিড বেকার এবং শুধু স্কুলের জন্য প্ল্যাকার্ড সম্বলিত বিশেষ ট্রাফিক পুলিশ নিয়োগ করার দাবিগুলো মেনে নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন চ্যানেল সিক্সকে এসব কথা জানান।

এর আগে দুই শিক্ষার্থীর পরিবারের সদস্যদের জন্য গাড়ি পাঠান প্রধানমন্ত্রী। সেই গাড়িতে চেপেই দেখা করতে যান প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে।

বাসচাপায় মারা যাওয়া দিয়া খানমের বোন রিয়া খানম চ্যানেল সিক্সকে বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেছি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার সময় আমার বাবা নিরাপদ সড়কের জন্য বেশ কয়েকটি দাবি জানিয়েছেন। সকল শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের সড়কের সামনে ফুটওভার ব্রিজ কিংবা আন্ডারপাস নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এগুলো আমরা পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করব। দিয়ার বাবাকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ছাত্রদের দাবি আমরা মেনে নিয়েছি। তারা এখন যেন রাস্তা থেকে সরে যায়।

বুধবার মিমের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেন নৌ পরিবহন মন্ত্রী ও শ্রমিক নেতা শাজাহান খান। তিনি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচারেরও প্রতিশ্রুতি দেন।

উল্লেখ্য, গত সোমবার কুর্মিটোলা জেলারেল হাসপাতালের সামনের সড়কে দুই বাসের রেষারেষিতে নির্মম মৃত‌্যুর শিকার শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী দিয়া আক্তার মিম ও আব্দুল করিম। এ ঘটনার প্রতিবাদে নিরাপদ সড়কের দাবিতে চার দিন ধরে রাজধানীসহ আশপাশের জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক দখল করে অান্দোলন করছে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর শাহবাগ, বাংলামোটর, সায়েন্সল্যাব, এলিফ্যান্ট রোড, মতিঝিল, দৈনিক বাংলা, তেজগাঁও, রামপুরা, বনশ্রী, উত্তরা, গাজীপুরের টঙ্গীসহ বিভিন্ন এলাকা অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে উত্তেজিত ছাত্র/ছাত্রীরা ।