ধরলা নদীতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
লালমনিরহাটের পাটগ্রামে ধরলা নদীর পানিতে ডুবে রাজিব (৮) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।
বুধবার (১৬ জুন) দুপুরে  পাটগ্রাম পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের সোহাগপুর গ্রামের ধরলা নদীতে গোসল করতে নেমে এ ঘটনা ঘটে। সে পাটগ্রাম উপজেলার কচুয়ারপাড় গ্রামের এরশাদ হোসেনের ছেলে।পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের সোহাগপুর গ্রামে নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে ধরলা নদীর পানিতে গোসল করতে গিয়ে ডুবে যায়। শিশুটি উপজেলার কচুয়ারপাড় গ্রামের এরশাদ হোসেনের ছেলে।স্থানীয় বাসিন্দা ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুরে সবার অজান্তে নানার বাড়ির নিকটবর্তী ধরলা নদীতে গোসল করতে নেমে ডুবে যায় রাজিব। নানার বাড়ির লোকজন তাঁকে বাড়িতে না পেয়ে খুঁজতে থাকে। প্রায় এক ঘন্টা পর স্থানীয়রা নদীতে একটি শিশুর লাশ পানিতে ভাসতে দেখে পাড়ে তোলে। খবর পেয়ে গিয়ে ওই শিশুর স্বজনেরা রাজিবের লাশ সনাক্ত করে।রাজিবের মামা বিপুল হোসেন বলেন, আমার ভাগ্নে রাজিব পাটগ্রাম পৌরসভার বুদ্ধি প্রতিবন্দী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র। সে মৃগী রোগে আক্রান্ত ও মানসিক প্রতিবন্দী। তাঁকে চোখে চোখে রাখা হয়। সবার অজান্তেই সে নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে মারা যায়।এ বিষয়ে পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরী রুজু হয়েছে।