ধর্ষণের ১৩ বছর পর বিচার পেল গৃহকর্মী!

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর-

রংপুরে ধর্ষণের ১৩ বছর পর বিচার পেয়েছে এক গৃহকর্মী।  গৃহকর্মীকে ধর্ষণ মামলায় নয়া মিয়া নামে একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। এছাড়া এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত-২ এর বিচারক রোকনুজ্জামান এ রায় দেন। দীর্ঘ তের বছর পর ওই মামলার রায় ঘোষণার সময় অভিযুক্ত নয়া মিয়া আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, রংপুরের পীরগাছা উপজেলার ফকিরান এলাকার এক দিনমজুর পরিবারের কিশোরী মেয়ে পার্শ্ববর্তী নয়া মিয়ার বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করতেন। ২০০৭ সালের ১৪ এপ্রিল ওই কিশোরীকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে নয়া মিয়া। এ ঘটনায় মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিষয়টি জানাজানি হয়। ওই  বছরের ২১ অক্টোবর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পীরগাছা থানায় মামলা করে ধর্ষিতা কিশোরী। এতে নয়া মিয়াকে আসামি করা হয়। দীর্ঘ তের বছর মামলার বিচারকার্য চলার পর মঙ্গলবার এর রায় ঘোষণা করেন বিচারক।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি জাহাঙ্গীর হোসেন তুহিন বলেন, জামিনে থাকা অবস্থায় অভিযুক্ত আসামি কিছুদিন আদালতে হাজিরা দিয়েছিলেন। তবে রায় ঘোষণার দিনে তিনি পলাতক থাকায় তার অনুপস্থিতিতে বিচারক এ আদেশ প্রদান করেছেন।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply