নওগাঁয় তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা

প্রকাশিত

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার আরজি-আড়ানগর গ্রামে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় শনিবার রাতে ফিরোজ হোসেন ভুট্টো নামে (৪০) এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ছাত্রীর পিতা একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ রোববার শিশুটির জবানবন্দি গ্রহণের জন্য আদালতে প্রেরণ করেছে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, উপজেলার আরাজি আড়ানগর গ্রামের জনৈক ব্যক্তির তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী শিশু কন্যা (১০) গত ১৮ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে বাড়ির পাশে  মুদি দোকানে ডিম কেনার জন্য যায়। এ সময় একই এলাকার মৃত মমতাজ উদ্দিনের ছেলে ফিরোজ ওরফে ভুট্টো (৪০) শিশুটিকে অর্থের লোভ দেখিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে জোরপূর্বক শিশুটির শ্লীলতাহানি ঘটায়। পরে শিশুটি ফিরোজের হাতে কামড় দিয়ে চিৎকার দিয়ে বাড়িতে পালিয়ে আসে। পরে এ ঘটনা কাউকে বললে শিশুটিকে মেরে ফেলার হুমকি ও ভয় ভীতি প্রদর্শন করে ফিরোজ। পরের দিন শিশুটি ঘটনাটি তার বাবা মাকে খুলে বলে। শিশুটিকে নিয়ে তার পিতা মাতা অসহায় হয়ে পড়ে। এর মধ্যে জয়পুরহাট সদরের নারী, শিশু ও পথশিশুদের নিয়ে কাজ করে মেঘা সুপার পাওয়ার ফাউন্ডেশনের পরিচালক মেফতাহুল জান্নাত লিখন জানতে পেয়ে গত শনিবার ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন এবং ঘটনার সত্যতা পেয়ে তিনি ওই শিশু ও তার পিতা নিয়ে থানায় আসেন।

এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার ওসি রকিবুল ইসলাম বলেন, শিশুর বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছে। আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।