নওগাঁয় শখের বসে দুর্লভ ড্রাগন ফলের চাষ!

প্রকাশিত

মাহবুবুজ্জামান সেতু, নওগাঁ- শখের বসে ড্রাগন ফলের চাষ করছেন সুলতান আহমেদ। ফুলের প্রতি ভালোবাসা আর ফলের গুণাগুণ বুঝেই তিনি এ গাছের চারা তার নিজ বাড়ির উঠানে রোপণ করেন। নওগাঁর মান্দা উপজেলার গনেশপুর ইউনিয়নের সতীহাট (গ্রামীন টাওয়ার সংলগ্ন) বাড়িতে প্রতিদিনের স্বাভাবিক পরিচর্যায় ওই দুর্লভ গাছ বড় করে তোলেন। সুলতান আহমেদ জানান, সতীহাটের জয়া ভ্যারাইটি ষ্টোরের অনিলের মাধ্যমে জানতে পেরে মৈনম ইউনিয়নের বিলদুবলা গ্রামের টগর মাষ্টারের বাড়ি থেকে ড্রাগন গাছের চারা সংগ্রহ করে বাড়ির উঠানে রোপণ করেন। জলাবদ্ধতা না থাকলে এর ফলন ভালো হয় বলে তিনি জানিয়েছেন। ড্রাগন একটি ঔষধি ফল। এ ফল শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। এটি একটি ব্রেইন টনিক হিসেবে কাজ করে। ড্রাগন ফল পেটের পীড়া, লিভারের সুস্থতা, উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগ নিরসনে অত্যন্ত কার্যকরী। এটি শরীরের রক্তের গ্লুকোজকে অতি সহজে নিয়ন্ত্রণে আনতে পারে বলে ডায়াবেটিস রোগীর জন্য ড্রাগন ফল মহৌষধ হিসেবে কাজ করে থাকে। এ ছাড়া ড্রাগন ফলে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি, মিনারেল এবং উচ্চ ফাইবার। বলিহার ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক এমদাদুল হক বাবু জানান, যেহেতু এ এলাকার মাটিতে ড্রাগন ফলের চাষ সম্ভব, তাই সরকারি কিংবা ব্যক্তি মালিকানায় এ ফলের চাষ করলে অসংখ্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। মান্দা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এটি একটি বিদেশি ফল। এ দেশে এখনও ব্যাপকভাবে এর চাষাবাদ শুরু হয়নি।