নরসিংদীর টেঁটাযুদ্ধের মূল হোতা ও হত্যা মামলার আসামী সুমেদ গ্রেফতার

প্রকাশিত
নরসিংদী প্রতিনিধি :- নরসিংদী জেলার  রায়পুরা উপজেলার দূর্গম  চরাঞ্চল নিলক্ষা ইউনিয়নের টেঁটাযুদ্ধের মূলহোতা ও একাধিক হত্যা মামলার আসামী সুমেদ আলী (৫২) কে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। রোববার ২০ জুন দুপুরে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১১ নরসিংদী ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মো. তৌহিদুল মবিন খান। এর আগে গত ১৯ জুন শনিবার নিলক্ষা ইউনিয়নের আতশ আলী বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। জানা যায়, গ্রেপ্তারকৃত সুমেদ আলী রায়পুরা থানার নিলক্ষা ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের মৃত মন্নর আলীর ছেলে। র‌্যাব-১১ জানায়,দূর্ধষ সুমেদ আলী রায়পুরার চর এলাকার লাঠিয়াল বাহিনীর প্রধান। নিলক্ষা ইউনিয়নসহ চরাঞ্চলীয় এলাকায় সংঘটিত প্রায় সব টেঁটযুদ্ধে নেতৃৃত্ব দিতো এই সুমেদ আলী। এছাড়াও সে জোরপূর্বক চর দখল ও সাধারণ গ্রামবাসীদের সংঘাতে জড়াতে বাধ্য করে আসছিল। তার বিরুদ্ধে রায়পুরা থানায় করা বিভিন্ন মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, সে সক্রিয়ভাবে বিভিন্ন হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত ছিল। টেঁটাযুদ্ধ, হত্যা, চাঁদাবাজির মাধ্যমে এলাকায় সে দীর্ঘদিন যাবৎ সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে জনমনে ভীতি সঞ্চার করে আসছে। তার নামে রায়পুরা থানায় একাধিক হত্যা মামলাসহ ১০ (টি) মামলা রয়েছে। একই সাথে ৬ টি গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে।দীর্ঘদিন গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে আসামীর অবস্থান নিশ্চিত হয়ে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকশদল সুমেদ আলীকে গ্রেপ্তার করে। এসময় তার নিকট থেকে নগদ ১৮ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। পরে তাকে রায়পুরা থানায় হস্তান্তর করা হয়।