নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকায়, টঙ্গীতে ছাদ থেকে পড়ে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত

মৃনাল চৌধুরী সৈকত : গাজীপুরের মহানগরের টঙ্গীর মধুমিতা মোল্লাবাড়ি এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকায় ছাদের মাচা ভেঙ্গে মো. জুয়েল (২৪) নামের এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে মধ্য আরিচপুর মধুমিতা মোল্লাবাড়ি এলাকার শিরিন আক্তারের বাড়ীতে এ ঘটনাটি ঘটে ।


পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য লাশ গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহম্মেদ মেডিকেলের মর্গে প্রেরণ করেন। নিহত জুয়েল ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানার মাদারগঞ্জ গ্রামের মৃত আঃ রহিমের ছেলে। দীর্ঘদিন সে মধুমিতায় বসবসা করে রাজমিস্ত্রীর কাজ করতেন ।
এলাকাবাসীরা জানায়, মঙ্গলবার সকালে জুয়েলসহ কয়েকজন শ্রমিক ওই এলাকার শিরিন আক্তারের নির্মানাধীন ভবনের ৪ তলায় কাজ করছিলেন। বহুতল ভবন নিমার্ণ আইন না মেনে কাজ কাজ করার ফলে এবং ৪র্থ তলায় কাজ করার সময় পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকায় দূর্বল মাচা ভেঙ্গে তিনি নিচে পড়ে গুরতর আহত হন। এসময় আশপাশের লোকজন দ্রুত তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
এবিষয়ে শিরিন আক্তার বলেন, এটি একটি নিছক দূর্ঘটনা, আমি আমার বহুতল ভবন নির্মাণে যথেষ্ট সর্তক ছিলাম, ওই শ্রমিক কাজ করার সময় অসাবধানতাবশত মাচা ভেঙ্গে পড়ে নিহত হয়েছে, এতে আমার অপরাধ কি ? তাছাড়া আমি কাজ চলাকালে ওখানে ছিলাম না, বাড়ির কাজ দেখাশোনার জন্য আলাদা লোক রয়েছে। তিনি নিহতের পরিবারকে যথাসাধ্য সহযোগীতা করার আশ্বাস দেন।
এ বিষয়ে টঙ্গী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. কামাল হোসেন বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।