পর্নো সিনেমায় অভিনয়কালে সানিকে যেভাবে আগলে রাখতেন স্বামী

প্রকাশিত

২০১২ সালে বলিউড অভিষেক করেন সানি লিওন। এর আগে পর্নো সিনেমার এক নম্বর নায়িকা ছিলেন তিনি। সেই অন্ধকার জগৎ থেকে বলিউডে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে নতুন করে সুনাম অর্জন করেছেন এ নায়িকা। সম্প্রতি ওয়েব সিরিজে সানির বায়োপিক মুক্তি পেয়েছে। এ প্রসঙ্গে একটি সাক্ষাৎকারে সানি জানান, পর্নো সিনেমায় অভিনয় করার সময় কীভাবে তার স্বামী তাকে সাহায্য করতেন।

সাত বছর আগে ড্যানিয়েল ওয়েবার কে বিয়ে করেন সানি লিওন। বিয়ের আগে থেকেই একসঙ্গে পর্নো সিনেমায় অভিনয় করতেন দুজনে। একটা সময় এই দম্পতি নিজেরা ছাড়া আর কারো সঙ্গে প্রাপ্তবয়স্কদের ছবিতে অভিনয় করতেন না। কিন্তু তার কারণটা কী, সেটা এতো দিনে এসে নিজের ওয়েব সিরিজ বায়োপিক প্রসঙ্গে সাক্ষাৎকারে খোলাসা করে দিলেন সানি লিওন। ড্যানিয়েলের সঙ্গে প্রেম, লিভ-ইন, একসঙ্গে পর্নো সিনেমায় অভিনয় করা এবং সর্বশেষে বিয়ের কথাও জানান সানি লিওন।

সানি জানিয়েছেন, ড্যানিয়েলের সঙ্গে তার আলাপ হয় ওমানের এক নাইট ক্লাবে। সেই সময় তিনি পর্নো সিনেমার উঠতি তারকা। সেটা জানলেও তার প্রতি ড্যানিয়েলের ভালোবাসায় কোনো কমতি ছিল না। সানি বলেন, ‘আমরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফোনে কথা বলতাম। যখন এক রেস্তোরাঁয় প্রথম দেখা করি, মনে হয়েছিল যেন ঘণ্টা তিনেক হুট করে কেটে গেল, শুধু আমি আর ড্যানিয়েলই আছি এই পৃথিবীতে। চারপাশে আর কেউই নেই।’

সানি আরও জানান, ড্যানিয়েল তাকে সব দিক থেকে আগলে রাখতেন। সাবেক এই পর্নো তারকা বলেন, ‘অন্য পুরুষের সঙ্গে আমি পর্নো ছবিতে অভিনয় করি, তা ড্যানিয়েলের পছন্দ ছিল না। তাই নিজেই আমার সঙ্গে পর্নো অভিনয় শুরু করে। এভাবেই তৈরি হয় আমাদের নিজস্ব পর্নো কোম্পানি। আমরা একসঙ্গে থাকতেও শুরু করি। এর বেশ পরে একদিন যখন আমি আমার আংটিগুলো রাখার জন্য একটা বাক্স খুঁজছিলাম, ড্যানিয়েল আমায় নিজে হাতে বানানো একটা মেহগনি কাঠের বাক্স উপহার দেয়। এ ছাড়া আরেকটা আংটি রয়েছে বলেও জানায়। প্রস্তাবটি এত সহজ এবং শান্ত ছিল- ঠিক যেমনটা আমি চেয়েছিলাম। এরপর আমি তাকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেই।’

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস