পাটশিল্পকে ধ্বংসের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে: জেএসডি

প্রকাশিত

পাট এবং পাট শিল্পকে প্রকৃতি সুরক্ষার প্রয়োজনে যখন এগিয়ে নেয়া জরুরি তখন ২৫টি সরকারি পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী বলে মনে করে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডি।

সোমবার (২৯ জুন) দলটির সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ছানোয়ার হোসেন তালুকদার এক বিবৃতিতে সরকারের এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, প্রকৃতি বান্ধব পাট এবং পাট শিল্পের প্রয়োজনীয়তা যখন জরুরি হিসেবে প্রতিভাত হচ্ছে, পাটের উৎপাদন বৃদ্ধি করার জন্য যখন কৃষকদের উৎসাহিত করা হচ্ছে, পাটের বহুমুখী পণ্য যখন সারা বিশ্বে সমাদৃত হচ্ছে তখন একযোগে ২৫টি পাটকল বন্ধ ঘোষণা চরম আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত।

জেএসডি নেতারা বলেন, পোশাকশিল্পের লাখ লাখ কর্মহীন শ্রমিকের সঙ্গে পাটকলের কর্মহীন শ্রমিকের দীর্ঘ মিছিল সামাজিক অস্থিরতা বৃদ্ধি করবে। এটা কোনোভাবেই কাম্য নয়। বেসরকারি খাতের পাটকলগুলো লাভজনক অবস্থায় টিকে থাকতে পারলেও সরকারের আওতাধীন জুট মিলগুলো বছরের পর বছর লোকসান করে যাচ্ছে শুধুমাত্র অব্যবস্থাপনা অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে। এর দায়ভার রাষ্ট্রকেই বহন করতে হবে।

নেতারা আরও বলেন, পাটকল শ্রমিকদের গোল্ডেন হ্যান্ডশেক দেয়ার পর পিপিপির আওতায় পাটকলের আধুনিকায়ন করে উৎপাদনমুখী করা হবে সরকারের এসব ঘোষণা একেবারেই প্রতারণামূলক। করোনার বিপর্যয়ে কোটি কোটি কর্মহীন মানুষ যখন অসহায় তখন ২৫ হাজার শ্রমিক ছাঁটাই সরকারের অবিবেচনাসুলভ সিদ্ধান্ত কোনোক্রমে মেনে নেয়া যায় না। এ সিদ্ধান্ত অবশ্যই প্রত্যাহার করতে হবে।

জেএসডির শীর্ষ এই দুই নেতা বলেন, সরকারের আওতাধীন পাটকলগুলোকে আধুনিকায়ন, শ্রমিক কর্মচারী ও সরকারের প্রতিনিধির সমন্বয়ে ‘অংশীদারত্ব ভিত্তিক ব্যবস্থাপনা’ গড়ে তুলে পাটকলগুলো চালু রাখতে হবে।