পুরো শরীরে জোর করে ক্রিম মাখানো হয়েছিল

প্রকাশিত

অনলাইন ডেস্ক-

মিটু ঝড়ে উত্তাল গোটা বলিউড। একের পর এক অভিনেত্রী নিজের যৌন হেনস্তার কথা প্রকাশ্যে আনছেন। সেই তালিকায় যোগ হলো এক নতুন নাম। টিভি অভিনেত্রী সোনাল ভেঙ্গুলকর প্রকাশ্যে শেয়ার করলেন তার যৌন হেনস্তার ঘটনা।

বম্বে টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে সোনাল অভিযোগের আঙুল তুলেছেন কাস্টিং ডিরেক্টর রাজা বাজাজের দিকে। রাজা সম্পর্কে টিভি অভিনেত্রী শিনা বাজাজের বাবা।

সোনাল জানিয়েছেন, ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে একটি কাস্টিং ওয়েবসাইটে অডিশন দেওয়ার সুযোগ পান তিনি। সেখানেই রাজা নাকি জানিয়েছিলেন, সোনালকে দেখতে ভালো। কিন্তু এই পেশা সম্পর্কে তার আরও ভালো করে জেনে নেওয়া প্রয়োজন। আরও গ্রুম করতে হবে তাকে। ফলে প্রাথমিক ভাবে রাজা নিজের সহকারী হিসেবে সোনালকে ক্যারিয়ার শুরু করার পরামর্শ দেন।

কিন্তু সেই অডিশনেই কিছুক্ষণ পরে নাকি নিজের মত বদলে ফেলেন রাজা। সোনালের কথায়, ‘আমাকে হঠাৎ কিছু জামা এনে পরে দেখতে বলেন। আমি অবাক হয়েছিলাম। কারণ অন্য এক মডেলের শুটিং চলছিল। সে সময় রাজা হাতে ক্রিম নিয়ে এসে শরীরে মেখে নিতে বলেন। তাতে নাকি ওই পোশাক ঠিক মাপে হবে। তারপর হঠাৎই আমার কাছে চলে এসে জোর করে পুরো শরীরে ক্রিম মাখাতে শুরু করে। আমি ভয় পেয়ে পালিয়ে গিয়েছিলাম। সে দিন অডিশনে আমার সঙ্গে পরিবারেরও কেউ ছিল না। ফলে আরও ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।

২০১২-তে কস্তুরবা মার্গ পুলিশ স্টেশনে গোটা ঘটনাটি জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন সোনাল।

অন্যদিকে রাজা পুলিশকে বলেছিলেন, সোনাল আমার বাড়িতে এসে তিন লাখ টাকা দাবি করেছিলেন। আমি তা দিতে চাইনি। পরে দেড় লাখ টাকা দাবি করে ও। কিন্তু তা না দেওয়ায় ও পুলিশের কাছে আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সে সময় পুলিশ তদন্ত এগিয়েছিল কিনা, তা জানা যায়নি। তবে এত বছর পরে #মিটু আন্দোলনের মুখে নিজের হেনস্তার কথা ফের প্রকাশ্যে আনলেন সোনাল।