প্রমাণ হলে বদিও রেহাই পাবে না: কাদের

প্রকাশিত

সাভার প্রতিনিধি: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য (উখিয়া-টেকনাফ) আবদুর রহমান বদির বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসার অভিযোগ প্রমাণিত হলে তিনি ছাড় পাবেন না।

মন্ত্রী বলেন, ‘বদির বিরুদ্ধে যদি অপরাধ-অভিযোগ প্রমাণিত হয়, বদির বেয়াই যেমন ছাড় পায়নি, বদিসহ আওয়ামী লীগ-বিএনপির বা অন্য দলের যারাই জড়িত কেউ রেহাই পাবে না।’

ঈদকে সামনে রেখে শনিবার সাভারের আশুলিয়ায় সড়কের উন্নয়ন কাজের পরিদর্শনে গিয়ে সাংবদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চলমান অভিযানকে জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে স্বাগত জানিয়েছে। কেবলমাত্র রাজনৈতিকভাবে মতলববাজরা এ অভিযানের সমালোচনা করছে। মন্ত্রী বলেন, মাদকের সঙ্গে অস্ত্র, কালোটাকা সবই জড়িত। এই মাদক আগামী প্রজন্মকে ধবংস করছে।

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযানের উদাহরণ টেনে মন্ত্রী বলেন, ‘মাদক ব্যবসায়ীরা শক্তিশালী। অভিযান চলাকালে মাদক ব্যবসায়ীরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের গুলি করবে আর তারা কি তখন জুঁই ফুলের গান গাইবে?’

এসময় প্রধানমন্ত্রীর চলমান ভারত সফর নিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের করা সমালোচনার জবাব দেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ফখরুল সাহেব কারা? যারা ভারতে গিয়ে লাল কার্পেটের সংবর্ধনা নিয়ে ঢাকায় ফিরে সাংবাদিকের বলেছিল, গঙ্গার পানি নিয়ে কথা বলতে তো ভুলেই গিয়েছিলাম? কিন্তু আমরা ভুলে যাইনি। আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি হিসেবে আমরা সম্প্রতি ভারতে গিয়েও এ ব্যাপারে কথা বলেছি।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আর প্রধানমন্ত্রী তো এবার দিল্লিও যাননি। গিয়েছেন শান্তিনিকেতনে ভিন্ন কর্মসূচিতে। সেখানে এ বিষয়ে আলোচ্যসূচী না থাকলেও তিস্তার পানি বণ্টন নিয়ে মমতা ব্যানার্জীর সঙ্গে আলোচনা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে একান্তে বৈঠকে রোহিঙ্গা ইস্যুসহ তিস্তার প্রসঙ্গ যে আলোচনা হয়নি, তাই বা কি করে জানেন ফখরুল সাহেব?’

শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতনে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে ‘বাংলাদেশ ভবন’ উদ্বোধনের পাশাপাশি মোদির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হন তিনি।

এ ছাড়া শুক্রবার কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ থেকে টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য আকতার কামালের (৪১) গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত কামাল এমপি বদির বড়বোন শামসুন্নাহারের দেবর। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়ে, কামালকে বৃহস্পতিবার রাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।