ফরিদপুরে কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে ব্যবসায়ীর মৃত্যু 

প্রকাশিত

মাহবুব হোসেন পিয়াল,ফরিদপুর প্রতিনিধি-
ফরিদপুরে কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক গার্মেন্ট সামগ্রীর ব্যবসায়ী (৫০)। গত বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ নিয়ে জেলায় মোট ৫ জনের মৃত্যু হলো করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে।

ওই ব্যবসায়ীর ভাঙ্গা উপজেলা সদর বাজারে গার্মেন্টস সামগ্রীর দোকান রয়েছে। ভাঙ্গার চুমুরদী ইউনিয়নের একটি গ্রামের অধিবাসী তিনি।
ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা গনেশ কুমার আগরওয়ালা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে রেফার্ড হয়ে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালের পুরুষ সার্জারি ওয়ার্ডে ফুসফুসে ক্যান্সারজনিত সমস্যা নিয়ে ভর্তি হন ওই ব্যবসায়ী। ওইদিন বিকেল সোয়া ৫ টার দিকে মারা যান তিনি।
গনেশ আগরওয়ালা আর বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সূত্রে আমরা জানতে পারি হাসপাতালে মৃত্যুবরণকারী ভাঙ্গার ওই ব্যবসায়ীর করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।
ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্ব্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা মো. মোহসীন উদ্দিন ফকির বলেন, ওই ব্যবসায়ী বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে আসেন। করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করে তাকে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে স্থনান্তর করা হয়।
মো. মোহসীন উদ্দিন ফকির আরও বলেন, ওই ব্যাবসায়ীর মৃত্যু ও দাফনের পর তার করোনা শনাক্ত হয়েছে মর্মে আমরা প্রতিবেদন পাই। এজন্য তাকে স্বাস্থবিধি রক্ষা করে দাফন করা যায়নি।
এদিকে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, জেলায় এ পর্যন্ত ২৪৫ জন করোনা রোগি শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ৫ জনের।