ফরিদপুরে খিচুড়ি খেয়ে একপরিবারের ৬জনসহ ২১ জন সংজ্ঞাহীন হয়ে হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত

জানুয়ারী,ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি-
ফরিদপুরে খিচুড়ি খেয়ে এক পরিবারের ছয় সদস্যসহ ২১জন সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েছেন। রবিবার বিকেল ৩টার দিকে ফরিদপুর সদরের কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের নয় নম্বর ওয়ার্ডের বারো ভাগিয়া গ্রামের মো. সিরাজ মাতুব্বরের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
সংজ্ঞাহীন ওই ২১ জন বর্তমানে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, রবিবার সিরাজ মাতুব্বরের বাড়িতে দুপুরে খাবারের জন্য পারিবারিকভাবে পোল্টি মুরগী দিয়ে খিচুড়ি রান্না হয়। এই খিচুড়ি খেয়ে সিরাজ মাতুব্বরের পরিবারের ছয়জনসহ জমিতে পিয়াজ রোপনের কাজে নিয়োজিত ৯জন শ্রমিক এক ঘন্টার মধ্যে একেএকে সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলেন।
পরে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সংজ্ঞাহীনদের মধ্যে সিরাজ মাতুব্বর নিজেও রয়েছেন।এছাড়া তার পরিবারের ৩নারী ও এক শিশু রয়েছে।
প্রতিবেশী রুমী মাতুব্বর জানান, পোল্টি মুরগী দিয়ে রান্না করা খিচুড়ি খেয়ে খাদ্যে বিষক্রীয়া হয়ে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।
ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক সাইফুর ইসলাম বলেন, খাদ্য খেয়ে সংজ্ঞা হারিয়ে ২১ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তাদের চিকিৎসা চলছে।
ফরিদপুর সদর সার্কেলের সহকারি পুলিশ সুপার সুমন রঞ্জন সরকার জানান, এ ব্যাপারে পুলিশের একটি দলকে ঘটনাস্থল ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।