ফরিদপুর মেডিকেলে পর্দা কেলেঙ্কারির ঘটনায় দুদকের মামলা

প্রকাশিত

ফরিদপুর প্রতিনিধি-ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের আলোচিত পর্দা কেলেঙ্কারির ঘটনায় দুদকের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টার দিকে ফরিদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশন প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী।
এ দুর্নীতির মামলার নথি নিয়ে মামুনুর রশীদ চৌধুরী জেলা ও দায়রা জজ আদালতের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আ. মান্নান জোয়ারদ্দারের কাছে জমা দেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারসহ হাসপাতালে সে সময়ে দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের। মোট ৬ জনকে আসামি করে এ মামলা দায়ের করা হয়।
মামলার আসামীরা হলেন, মেসার্স অনিক ট্রেডার্স এর স্বত্তাধীকারী আবদুল্লাহ আল মামুন, মেসার্স আহমেদ এন্টারপ্রাইজের স্বত্তাধীকারী মুন্ষী ফররুখ আহমেদ, জাতীয় বক্ষব্যাধী হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মুন্সী সাজ্জাদ হোসেন, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক তত্বাবধায়ক ডা. গনপতি বিশ্বাস শুভ, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা. মিনাক্ষী চাকমা এবং ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক প্যাথলজিষ্ট ডা. এ এইচ এম নুরুল ইসলাম।
মামলার আর্জিতে বলা হয়েছে, অসৎ উদ্দেশ্যে ক্ষমতার অপব্যবহার করে পরস্পরের যোগসাজসে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের জন্য অপ্রয়োজনীয় এবং অবৈধভাবে প্রাক্কলন ব্যতিত উচ্চ মূল্যে হাসপাতালের যন্ত্রপাতি ক্রয়ের মাধ্যমে সরকারের দশ কোটি টাকা আত্মসাতের চেষ্টা করেছেন।