ফ্রান্সে গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশি, আতঙ্কে প্রবাসীরা

প্রকাশিত
ফ্রান্স (প্যারিস) সংবাদদাতা: ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের নিকটবর্তী বাংলাদেশি অধ্যুষিত গার সার্সেল এলাকায় জাবের আহমদ নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশির গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
সামাজিক যোগাযাগ মাধ্যম ফেসবুক সুত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের ন্যায় গত সোমবার কাজ থেকে ফেরার পথে এক দল আফ্রিকান সন্ত্রাসীদের ছোড়া গুলিতে আহত হন সিলেটের গোলাপগন্জ এলাকার জাবের।
খবর পেয়ে স্হানীয় পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে নিকটবর্তী গনেশ হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতাল চিকিৎসা শেষে ডাক্তারেরা তাকে বিশ্রামের থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।
এর আগে ও গত ৯ সেপ্টেম্বরে ২০১৭ তারিখে একই এলাকায় সন্ত্রাসীরা গুলি করে গরুত্বর আহত করেছিল সিলেট এর গোলাপগঞ্জ এলাকায় রুহুল আমিন নামে এক প্রবাসীকে। এ ঘটনা জানাজানি হবার পর থেকে প্রবাসীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।
পাশাপাশি তীব্র অসন্তোষ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রবাসীরা জানায়, গার সার্সেল, সেন্ট ডেনিস, বারভেজ, লা কনোভ, ক্যাথ সীমাসহ প্যারিসের ভেতরে কয়েকটি এলাকায় প্রায় বাংলাদেশিদের আফ্রিকান ও আরবি সন্ত্রাসীদের দ্বারা চিনতাই, হুমকি ও মারধর ঘটনা ঘটছে।
বাংলাদেশিরা ভালোভাবে ফ্রান্সের স্হানীয় ভাষা না জানায় সমস্যগ্রস্হ হয়ে প্রশাসনকে সমস্যার কথা বোঝাতে না পারার কারণে সঠিক সহযোগিতা পায় না। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এখন বাংলাদেশিদের উপর গুলির মত ঘটনা ঘটছে বলে জানান ভুক্তভোগীরা।
এ ধরনের হামলার শিকার নোয়াখালীর হালিম জানায়, তিন দিন আগে কাজ থেকে ঘরে ফেরার সময় সেন্ট ডেনিস গারে আরবি সন্ত্রাসীরা পেছন থেকে তাঁর মাথায় বাড়ি মারে, কোন কিছু বোঝার আগেই তাঁর স্যামসাং এস এইট মোবাইল ও নগদ টাকা নিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা।
ক্ষোভ প্রকাশ করে হালিম জানায়, ফ্রান্সে ব্যাঙ্গের চাতার মত বাংলাদেশ কমিউনিটির নাম সর্বস্ব শতাধিক সংগঠন থাকলে ও (২/১ টি ছাড়া) প্রবাসীদের অধিকার ও সমস্যা নিয়ে জোরালো দাবি করার মত কেউ নেই।
নতুবা এ ধরণের ঘটনার পরও হাজারো প্রবাসী নিয়ে জোরালো প্রতিবাদ হলে বাংলাদেশীদের উপর বার বার এমন হামলা হতো না। ভুক্তভোগীরা বলেন, কমিউনিটিতে ফেসবুকে ও মাইক্রোফোন হাতে হাজারো নেতা আছেন ঠিকই, কিন্তু সমস্যা নিয়ে যর্থাযথ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলার কেউ নেই।
তবে অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন (আয়েবা), বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন ফ্রান্স (বিসিএফ), অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাব, ইপিবিএ, প্যারিস বাংলা প্রেস ক্লাবের নেতৃবৃন্দ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেছেন এবং আহত জাবেরের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন।