বাঁশ দিয়ে এলাকা লকডাউন করছে ইয়াঙ্গুনের বাসিন্দারা

প্রকাশিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক-

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে মিয়ানমারের সবচেয়ে বড় শহর ইয়াঙ্গুনে বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে কয়েকটি এলাকা লকডাউন শুরু করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। শুক্রবার থেকে এসব এলাকায় লকডাউন শুরু হয়েছে।

মিয়ানমারে এ পর্যন্ত দুই হাজার ৬২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ১৫ জন আক্রান্ত। মধ্য আগস্ট থেকে দেশটিতে করোনায় সংক্রমণের হার তিন গুণ বেড়েছে। ওই সময় সংক্রমণের অধিকাংশ ঘটনা ছিল রাখাইনে। সম্প্রতি ইয়াঙ্গুনে সংক্রমণের হার বেড়েছে। ভাইরাসের বিস্তার রোধে শহরটির বাসিন্দারা জনগণের অবাধ প্রবেশ বন্ধে বাঁশ দিয়ে সড়কে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছে।

গত সপ্তাহে সরকার বাসিন্দাদের বাড়িতে থাকার নির্দেশ জারি করেছিল। এছাড়া ইয়াঙ্গুনের সঙ্গে অন্যান্য শহরের বিমান ও বাস যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

কিমাইদাং শহরতলীর প্রধান অং জ মিন জানান, এর আগে যখন সংক্রমণের হার কম ছিল তখন স্থানীয়রা অসতর্ক ছিল। এর ফলে সংক্রমণের হার বেড়ে গেছে।

তিনি বলেন, এখন আমরা বুঝতে পারছি, সিতওয়ের কারণে আমরা গণসংক্রমণকে অবমূল্যায়ণ করতে পারি না।’

প্রসঙ্গত, রাখাইনের রাজধানী সিতওয়ে। সম্প্রতি এই শহরে বিপুল সংখ্যক মানুষের মধ্যে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply