‘বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আগের চেয়ে অনেক শক্তিশালী’

প্রকাশিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আগের চেয়ে অনেক শক্তিশালী। এই সরকার সেনাবাহিনীর অবকাঠামো ও প্রযুক্তিগতভাবে ব্যাপক উন্নয়ন সাধন করেছে। এই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামে মিলিটারি একাডেমিতে ৭৫ লং কোর্সের রাষ্ট্রপতি প্যারেডে ক্যাডেটদের কমিশনিং অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেনাবাহিনীকে জনগণের সুখ-দুঃখের সাথী হতে হবে। দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়ানো ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সর্বোচ্চ ত্যাগ শিকারে প্রস্তুত থাকতে হবে। বিশ্বে শান্তি ও সমৃদ্ধির প্রতীক হয়ে বাংলাদেশের মর্যাদা বাড়াবে সেনাবাহিনী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেনাবাহিনী জনগণের অবিচ্ছেদ্য অংশ। সেনাবাহিনীকে সব সময় জনগণের পাশে দাঁড়াতে হবে।

বিপন্ন মানুষের পাশে দাঁড়াতে সেনাবাহিনীর ক্যাডেটদের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘তোমরা দায়িত্ব পালনে সদা প্রস্তুত থাকবে। সিনিয়রদের নির্দেশ মেনে চলবে।’ এসময় তিনি রোহিঙ্গা ইস্যুতে সেনাবাহিনীর ভূমিকার প্রশংসা করে তাদের ধন্যবাদ জানান।

২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেন শেখ হাসিনা।

নতুন কমিশনপ্রাপ্তদের উদ্দ্যেশ্যে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে দেশমাতৃকার সেবায় নিজেকে সমর্পণ করতে হবে। দেশকে ভালোবাসতে হবে। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে আজ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ভূমিকা বিশ্বদরবারে প্রশংসিত। এই সুনাম অক্ষুণ্ন রাখতে হবে।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply