বাউফলে অবৈধ জাল আটক নিয়ে ধূম্রজাল

প্রকাশিত

বাউফল(পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃকারেন্ট জালের মোকাম হিসেবে খ্যাত পটুয়াখালী বাউফলের কালাইয়া বন্দরের মার্চেন্ট পট্টি এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ অবৈধ জাল আটকের পর ১ লাখ টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় এলাকায় চা ল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
জানাগেছে, মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) কোষ্ট গার্ডের কমান্ডার মোশারেফ হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম কালাইয়া বন্দরের ৩টি দোকানে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ কারেন্ট জাল ও ছোট ফাঁসের (বেড়) জাল আটক করেন। অভিযান পরিচালনার পরে রাতে কালাইয়া বন্দরের দুইজন সাংবাদিক গিয়ে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করেন। পরে সাংবাদিকদ্বয়ের মধ্যস্থতায় ১ লাখ টাকায় দফারফা হওয়ার পর প্রায় ৪ লাখ টাকা মূল্যের বেড় জাল ছেড়ে দেয়া হয়। কিছু জাল কোষ্ট গার্ড সদস্যরা স্থানীয় মৎস্য কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে কালাইয়া বন্দরে ব্যবসায়ীদের মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। তবে টাকার বিনিময়ে জাল আটকের পর ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে কোষ্টগার্ড কমান্ডার মোশারেফ হোসেন বলেন, আমরা অভিযান চালিয়ে জাল আটকের পর মৎস্য কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করেছি। ছেড়ে দেয়া বা ধ্বংস করার ক্ষমতা মৎস্য কর্মকর্তার। এ প্রসঙ্গে মৎস্য কর্মকর্তা তম্ময় কুমার দাস বলেন, কোষ্টগার্ড অভিযান চালিয়ে যে জাল আটক করেছে তা আমাদের কাছে হস্তান্তর করেনি। এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবনা। ইউএনও নির্বাহী ক্ষমতার মালিক তার কাছ থেকে জেনে নিন।