বাউফলে ওসির সামনে বাদীকে মারধর

প্রকাশিত

বাউফল(পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর বাউফলে ওসির অফিস কক্ষে মামলার বাদী সহ ৩ জনকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ এর অফিস কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উপজেলার মদনপুরা ইউপির চন্দ্রপাড়া গ্রামের মনিরুল ইসলাম শাহীন এর সঙ্গে মামুন সিকদার গংদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। বিষয়টি নিয়ে আদালতে একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। বাউফল পৌর শহরের এক প্রভাবশালী নেতার যোগসাজসে মামুন সিকদারের পক্ষ নিয়ে ওসি মনিরুল ইসলাম মামলা তুলে নেয়ার জন্য শাহীনের উপর চাপ সৃষ্টি করেন। বৃহস্পতিবার মামুন সিকদার থানায় আসার পর ওসি মামলার বাদি শাহীন ও তার বাবা মোসলেম উদ্দিনকে খবর দিয়ে থানায় নিয়ে আসেন। সেখানে ওসি মনিরুল ইসলাম বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য শাহীনের ওপর চাপ সৃষ্টি করেন। আদালতে মামলা বিচারাধীন থাকায় শাহীন এ সময় ওসির কাছে সময় প্রার্থনা করেন। এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে মামুন সিকদার ও তার সহযোগীরা শাহীন ও তার বাবার ওপর হামলা করেন। বাঁধা দিতে গেলে শাহীনের বাসার কর্মচারী রিফাতকে পিটিয়ে আহত করা হয়। ঘটনার পর দ্রুত ২ পক্ষকেই ওসি তার কক্ষ থেকে বের করে দেন। এরপর বিষয়টি বাউফলে টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়। এ প্রসঙ্গে মনিরুল ইসলাম শাহীন অভিযোগ করে বলেন, ওসির মাধ্যমে ডেকে নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকেরা তাদের উপর পরিকল্পিতভাবে হামলা করেছে। অভিযোগ অস্বীকার করে ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, যা হয়েছে তা থানার বাইরে, ভেতরে কিছু হয়নি।