বাগেরহাটের মোংলা পৌরসভায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী জয়ী

প্রকাশিত
 সোহেল রানা বাবু,বাগেরহাট প্রতিনিধি-
দীর্ঘ প্রতিক্ষিত মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে আ’লীগের বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান ১১ হাজার ৫৮৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচন করা বিএনপির মেয়র প্রার্থী বর্তমান মেয়র মোঃ জুলফিকার আলী পেয়েছেন ৫৮২ ভোট। মোংলা উপজেলা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য জানান।
এ পৌরসভায় প্রথমবারের মত ইভিএমে অনুষ্ঠিত হওয়া নির্বাচনে প্রাপ্ত ভোটের ৩৯ শতাংশ ভোটাররা তাদের ভোট প্রয়োগ করতে পেরেছে বলে জানান রিটার্নিং কর্মকর্তা। শনিবার ১৬ জানুয়ারী ভোট গ্রহন শুরু হয় সকাল ৮টা থেকে। সকালে ভোট শুরুর দুই ঘন্টার মাথায় কেন্দ্র দখল, জোর করে ভোট প্রদানসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে ভোট বর্জন করেন বিএনপি মেয়র প্রার্থী মোঃ জুলফিকার আলী। একই সাথে বিএনপির সমর্থিত সংরক্ষিতসহ ১২ কাউন্সিলর প্রার্থীও ভোট বর্জনের ঘোষনা দেন।
মোংলা উপজেলা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন ভোট সুষ্ঠ হয়েছে দাবি করে বলেন, সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ইভিএমের মাধ্যমে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটাররা তাদের ভোট প্রদান করেন। ভোট শেষে প্রাপ্ত ফলাফলে নৌকার প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করা শেখ আব্দুর রহমান ১১ হাজার ৫৮৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে এ নির্বাচনে অংশ নেয়া জুলফিকার আলী পেয়েছেন ৫৮২ ভোট।
এছাড়া সাধারণ আসনে কাউন্সিলর পদে কবির হোসেন, শরিফুল ইসলাম, বাহাদুর মিয়া, শফিকুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, জি এম আল আমিন, হুমায়ূন হামিদ নাসির, সরোয়ার হোসেন ও মজনু গাজী এবং সংরক্ষিত আসনে কাউন্সিলর পদে জাহানারা চানু, জোহরা বেগম ও শিউলি আকন এবারের পৌর নির্বাচনে বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন বলে জানান সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন।
মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে ১২টি কেন্দ্রে ১৩৮টি ভোটিং মেশিনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান, বিএনপির মোঃ জুলফিকার আলী, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকছেদুর রহমান গামা মেয়র পদে এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। এছাড়া ৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৫ জন কাউন্সিলর ও ৩টি সংরতি ওয়ার্ডে ১২ জন মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন। এবারের নির্বাচনে পৌরসভায় মোট ৩১ হাজার ৫২৮ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে ১৬ হাজার ৬৮১ জন পুরুষ এবং ১৪ হাজার ৮৪৭ জন নারী ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত মোট ১২ হাজার ১৭০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।
সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য মোংলা পোর্ট পৌরসভার ১২টি কেন্দ্রের জন্য ১২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ২২০ জন পুলিশ, র‌্যাব, কোস্টগার্ড, আনাসার ও ডিবি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল। ১২টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের জন্য ১২ জন প্রিজাইডিং অফিসার ও ৯২ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার দায়িত্ব পালন করেছেন আর শনিবার সকাল ৮টায় শুরু হওয়া ভোট চলেছে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।